খেলাধুলা

এবার ডিজিটাল পদ্ধতিতে বাছাই করা হবে ক্রিকেট প্রতিভা!

করো’না মহামা’রির কারণে এবার ডিজিটাল পদ্ধতিতে প্রতিভা অন্বেষণের কাজে হাত দিতে যাচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। সাকিব-তামিম’দের উত্তরসূরী খুঁজতে ক্ষুদে ক্রিকেটারদের ভিডিও পাঠানোর জন্য আহ্বান জানিয়েছে তারা। এক ভিডিও বার্তায় তামিম-মুশফিক এবং আকবর জানিয়েছেন, ভিডিও পাঠানোর নিয়মাবলী।

একক এবং দলীয় অনুশীলনের পর এবার প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেটটাও গড়িয়েছে শের ই বাংলায়। তবে, আলোর মুখের সন্ধান পাচ্ছিলোনা, নতুন ক্রিকেটারদের হান্টিং কার্যক্রম। অবশেষে, তাই অ’ভিনব এক সিদ্ধান্ত নিলো ক্রিকেট বোর্ড। ভিডিও দেখে, তামিম-সাকিবদের উত্তরসূরী বাছাই করতে চায় তারা।

আর এ প্রচারণার অংশ হিসেবে ভবিষ্যতের ক্রিকেটারদের জন্য ভিডিও বার্তা দিলেন ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিম এবং যুব বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক আকবর আলী।

তামিম-মুশফিক বলেন, ব্যাটিং-বোলিং যেটাতে তুমি ভালো, সেটা পাঠিয়ে দাও তোমা’র জে’লার বয়সভিত্তিক হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে অথবা বিভাগীয় কোচদের হোয়াটসঅ্যাপ কিংবা মেইলে।

তবে, যেন তেন ভাবে কোন ভিডিও পাঠালে হবে না। তার জন্য বেঁধে দেয়া হয়েছে কিছু নিয়ম কানুন। আর নিয়মটা যাতে বুঝতে অ’সুবিধা না হয়, তার জন্য প্রকাশ করা হয়েছে একটি ডেমো ভিডিও।

যদি কারো ইচ্ছে থাকে ব্যাটসম্যান হবার, তাহলে তাকে অবশ্যই বোলিং এন্ড থেকে ভিডিওটি ধারণ করতে হবে।.

আর যদি বল দিয়ে আ’গুন ঝড়াতে চাও ২২ গজে, তাহলে ভিডিও বানানোর নিয়ম হচ্ছে তিনটি। প্রথমটি ভিডিওটি হতে হবে অবশ্যই বোলারের পেছন থেকে। পরেরটি সাইড ভিউ, অর্থ্যাৎ পিচের পাশ থেকে। আর তৃতীয় ভিডিওটি করতে হবে বোলারের সামনে থেকে। পেসার কিংবা স্পিনার দুজনের জন্যই নিয়মটা থাকছে একই।

তবে, অনেকেরই ইচ্ছে থাকতে পারে মুশফিকুর রহিমের মতো উইকেট কিপার হওয়ার। তাদের জন্য ভিডিও ধারণ করতে হবে বোলিং এন্ড থেকে।

ভিডিওটি করার সময় অবশ্যই ক্রিকে’টের নূন্যতম বিষয়গুলো খেয়াল রাখতে হবে প্রতিযোগিদের। বল হতে হবে লাল রঙের। প্যাড, গ্লাভস, হেলমেট থাকতে হবে বাধ্যতামূলক। আর পরিধান করা যাবে সাদা টিশার্ট এবং ট্রাউজার।

অনূর্ধ্ব-১৪, অনূর্ধ্ব-১৬ কিংবা অনূর্ধ্ব-১৮ জে’লা এবং ঢাকা মেট্রো দলে খেলতে চাইলে এখনই বানাতে হবে ভিডিওগুলো। আর পাঠাতে হবে বিসিবির ঠিকানায়।

Back to top button