অপরাধজাতীয়

নারায়ণগঞ্জে সাংবাদিক কু-পিয়ে হ’’ ত্যা, আ’ট’ক ১

নারায়ণগঞ্জের বন্দরে স্থানীয় দৈনিক বিজয় পত্রিকার সাংবাদিক ইলিয়াছকে ছু’রিকাঘাতে হ’’ ত্যা করা হয়েছে। স্বজনদের অ’ভিযোগ, মা’দক ব্যবসা নিয়ে খবর প্রকাশ করায় স’ন্ত্রাসীরা পূর্ব পরিক’ল্পিতভাবে তাকে হ’’ ত্যা করেছে। এঘটনায় একজনকে আ’ট’ক করেছে পু’লিশ।

রোববার (১১ অক্টোবর) রাত আটটার দিকে উপজে’লার জিওধারা চৌরাস্তা এলাকায় এ হ’’ ত্যাকা’ণ্ড ঘটে।

স্থানীয়দের দাবি, এলাকার চিহ্নিত মা’দক ব্যবসায়ীদের বি’রুদ্ধে অবস্থান নেয়ায় পরিক’ল্পিতভাবে ইলিয়াছকে হ’’ ত্যা করা হয়েছে। তবে পু’লিশ বলছে, হ’’ ত্যাকা’ণ্ডে জ’ড়িতদের গ্রে’ফতারের চেষ্টা চলছে।

শনিবার (১০ অক্টোবর) রাতে নারায়ণগঞ্জ সদরের ১শ’ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতা’লে গিয়ে দেখা যায়, স্বজনদের কা’ন্না আর আহাজারিতে শোকের ছায়া নেমে আসে পুরো হাসপাতাল জুড়ে।

তাদের সান্ত্বনা দিতে এবং ইলিয়াছের লা’শ দেখতে ছুটে আসেন এলাকার শত শত নারী পুরুষ। তবে কোনোভাবেই এ হ’’ ত্যাকা’ণ্ডকে মেনে নিতে নিতে পারছেন না নি’হতের পরিবার ও স্বজনরা।

এসময় নি’হত ইলিয়াছের স্ত্রী’ বিলকিস চি’ৎকার করে কেঁদে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন।

ইলিয়াছের স্ত্রী’ বলেন, ‘আমা’র স্বামীর সাথে কারো কোন শত্রুতা ছিল না। ঝগড়া বিবাদ ছিল না। কেন, কি অ’প’রাধে আমা’র স্বামীকে হ’’ ত্যা করা হলো? আমি খু’’ নিদের বিচার চাই।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী স্থানীয় ব্যবসায়ী তাওলাদ হোসেন সময় নিউজকে জানান, স্থানীয় সংবাদমাধ্যম দৈনিক বিজয়ের সংবাদকর্মী ইলিয়াছকে শনিবার রাত আটটার দিকে জিওধারা চৌরাস্তা এলাকায় একা পেয়ে অকথ্য ভাষায় গালাগাল করে চিহ্নিত মা’দক ব্যবসায়ী তুষার ও তার বাহিনীর স’ন্ত্রাসীরা। এক পর্যায়ে ইলিয়াছকে মা’রধরের পর শরীরের বেশ কয়েকটি স্থানে এলোপাতাড়ি ছু’রিকাঘাত করে দ্রুত পালিয়ে যায় তারা। পরে গুরুতর অবস্থায় ইলিয়াছকে সদরের জেনারেল হাসপাতা’লে নিয়ে গেলে সেখানে তিনি মা’রা যান।

তাওলাদ হোসেন ঘটনার বর্ণা দিতে গিয়ে বলেন, ‘আমি দেখলাম তুষার ইলিয়াছকে বাবা মা তুলে গালিগালাজ করে বুকে একটা ঘুষি দেয়। আর বলতে থাকে, তুই কতো বড় সাংবাদিক হইছিস? আমি এখন তোরে দেখাইয়া দিব। এই বলে ইলিয়াছকে মা’রধর করতে করতে টেনে হেঁচড়ে একটা অন্ধকার স্থানে নিয়ে যায়। কিছুক্ষণ পর কাছে গিয়ে দেখি ইলিয়াছের গায়ের শার্ট ছিঁড়ে ফেলা হয়েছে। তার বুকে ও পেটে তিন চার জায়গায় ছু’রিকাঘাতের ক্ষত। সেই ক্ষত স্থান গুলো দিয়ে র’ক্ত ঝরছে। পরে তার স্ত্রী’কে ফোন করে খবর দেই। তারা আসলে আমি সহ এলাকাবাসী ইলিয়াছকে ভিক্টোরিয়া হাসপাতা’লে নিয়ে যায়। হাসপাতাল নেওয়ার পর ডাক্তার ইলিয়াছকে মৃ’ত ঘোষণা করে।’

নি’হত ইলিয়াছের ভাগিনা পলা’শ বলেন, ‘মা’দক ব্যবসায়ী তুষার আর তার বাহিনী এলাকায় মা’দক ব্যবসা নিয়ন্ত্রণ করে। আমা’র মামা তাদের বি’রুদ্ধে নিউজ করছে বলে তাকে পরিক’ল্পিতভাবে খু’’ ন করেছে।’

দৈনিক বিজয় পত্রিকার ভা’’ রপ্রাপ্ত সম্পাদক সাব্বির আহম্মেদ সেন্টু সময় নিউজকে বলেন, ‘মা’দক ব্যবসায়ী তুষার বাহিনীর বি’রুদ্ধে সম্প্রতি বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হওয়ায় সাংবাদিক ইলিয়াছকে টার্গেট করে তারা। সেই থেকে ইলিয়াছের প্রতি মা’দক ব্যবসায়ীদের ক্ষোভ সৃষ্টি হয়।’ এর জের ধরেই তাকে হ’’ ত্যা করা হয়েছে বলে অ’ভিযোগ তুলে এই হ’’ ত্যাকা’ণ্ডে জ’ড়িতদের দ্রুত গ্রে’ফতার করে সুষ্ঠু বিচার দাবি করেন তিনি।

এদিকে, হ’’ ত্যাকা’ণ্ডের খবর পেয়ে বন্দর থা’না পু’লিশ লা’শ উ’দ্ধার করে ময়না ত’দন্তের জন্য ম’র্গে পাঠায়।

বন্দর থা’না পু’লিশ উপ-পরিদর্শক তাহিদ উল্লাহ সময় নিউজকে বলেন, ‘নি’হতের পরিবারের পক্ষ থেকে মা’মলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। এ ঘটনায় জ’ড়িতদের দ্রুত গ্রে’ফতার করে আইনের আওতায় আনার চেষ্টা চলছে।

তবে বন্দর থা’নার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ফখরুদ্দিন ভূঁইয়া সময় নিউজকে বলেন, ‘সাংবাদিক ইলিয়াছকে কু-পিয়ে হ’’ ত্যার সাথে জ’ড়িত অ’ভিযোগে তুষার নামে একজনকে আ’ট’ক করে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। তার শরীরের পোশাকের বিভিন্ন অংশে র’ক্ত লেগে থাকায় ধারণা করা হচ্ছে সে-ই এই হ’’ ত্যাকা’ণ্ডের মূল হোতা। আরও কেউ জ’ড়িত থাকলেও তাদেরকেও আম’রা গ্রে’ফতার করবো।’

Back to top button