অপরাধজাতীয়

মালেকের বি’রুদ্ধে অ’ভিযােগের দায় তার ব্যক্তিগত: স্বাস্থ্যশিক্ষা অধিদফতর

স্বাস্থ্য অধিদফতরের সদ্য বরখাস্তকৃত গাড়িচালক মাে. আব্দুল মালেক এর বিষয়ে স্বাস্থ্যশিক্ষা অধিদফতরের কোন সংশ্লিষ্টতা নেই বলে বি’জ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে।

বুধবার এ বিষয়ে এক বি’জ্ঞপ্তি প্রকাশ করে স্বাস্থ্যশিক্ষা অধিদফতর। বি’জ্ঞপ্তিতে বলা হয়, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের অধীনে গত ২৪/১১/২০১৯ইং তারিখে মূলে স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদফতর গঠিত হয়।

এরপরে অধ্যাপক ডা. এ এইচ এম এনায়েত হােসেন গত ৩১/১২/২০১৯ইং তারিখ মহাপরিচালক হিসাবে যােগদান করেন। গাড়িচালক মাে. আব্দুল মালেককে গত ০১/০১/২০২০ইং তারিখ স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে প্রেষণে স্বাস্থ্যশিক্ষা অধিদফতরে ন্যাস্ত করা হয়।

প্রতিষ্ঠাকালীন সময় হতে আজ পর্যন্ত নব গঠিত স্বাস্থ্যশিক্ষা অধিদফতর কর্তৃক কোন প্রকার কেনাকা’টা, কর্মচারী নিয়ােগ, পদায়ন বা পদোন্নতির কাজ করা হয়নি। কাজেই গাড়িচালক মাে. আব্দুল মালেকের বি’রুদ্ধে উত্থাপিত অ’ভিযােগসমুহের সাথে স্বাস্থ্যশিক্ষা অধিদফতর বা স্বাস্থ্যশিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালকের কোন প্রকার সংশ্লিষ্টতা নেই। সুতরাং বরখাস্ত ড্রাইভা’’ র মালেকের বি’রুদ্ধে উত্থাপিত অ’ভিযােগ সমুহের দায় তার ব্যক্তিগত।

উল্লেখ্য, স্বাস্থ্যশিক্ষা অধিদফতরের ড্রাইভা’’ র হয়েও মালেক সবখানে নিজেকে অধিদফতরের ঊর্ধ্বতন কর্মক’র্তা দাবি করতেন। নির্দিষ্ট প্রমাণাদি না থাকায় কেউ কোনদিন সে বিষয়ে আওয়াজ তোলেননি। তবে রেবের সাম্প্রতিক ত’দন্তে বেরিয়ে আসে মালেকের আলাদিনের চেরাগ পাওয়ার গল্প।

Back to top button