জাতীয়

রায়হানের গায়ে ১১১টি আ’ঘাতের চিহ্ন, নখ উপড়ে ফেলে

সিলেট নগরীর বন্দরবাজার পু’লিশ ফাঁড়িতে নি’র্যা’তনের পর নি’হত যুবক রায়হান আহম’দের শরীরে আ’ঘাতের ১১১টি চিহ্ন পাওয়া গেছে। হয়েছিল অভন্তরীণ র’ক্তক্ষরণও। রায়হানের লা’শের পুনরায় ময়নাত’দন্তের জন্য গঠিত মেডিকেল বোর্ডের প্রধান ও সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজের ফরেনসিক বিভাগের প্রধান ডা. শামসুল ইস’লাম এসব তথ্য জানিয়েছেন। শনিবার (১৭ অক্টোবর) এ তথ্য উল্লেখ করে ইতিমধ্যে মা’মলার ত’দন্তকারী সংস্থা পিবিআইকে একটি প্রাথমিক প্রতিবেদনও তিনি দিয়েছেন বলে জানান।

ডা. শামসুল ইস’লাম বলেন, প্রয়োজনীয় কিছু রাসায়নিক পরীক্ষার পর পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন দেওয়া হবে।

প্রাথমিক প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, রায়হান মা’রা যাওয়ার ২ থেকে ৪ ঘণ্টা আগে এসব আ’ঘাত করা হয়েছিল। তার শরীরে ১১১টি আ’ঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। উপড়ে ফেলা হয়েছে হাতের নখ। মৃ’ত্যুর সময় তার পাকস্থলী খালি ছিল।

ডা. শামসুল ইস’লাম জানান, ময়নাত’দন্তের মূল প্রতিবেদন দিতে সময় লাগবে। প্রাথমিকভাবে আম’রা একটি প্রতিবেদন দিয়েছি। এতে এসব উল্লেখ করা হয়েছে।

সিলেট নগরীর আখালিয়ার নেহারীপাড়ার মৃ’ত রফিকুল ইস’লামের ছে’লে রায়হান আহম’দকে গত শনিবার বন্দরবাজার পু’লিশ ফাঁড়িতে ধরে নিয়ে নি’র্মম নি’র্যা’তন চালানো হয়। এতে তার মৃ’ত্যু হয়। এ ঘটনায় রায়হানের স্ত্রী’ তাহমিনা আক্তার বাদী হয়ে মা’মলা করেছেন। মা’মলা’টি বর্তমানে ত’দন্ত করছে পিবিআই। এ ঘটনায় অ’ভিযু’ক্ত বন্দরবাজার ফাঁড়ির বরখাস্তকৃত ইনচার্জ এসআই আকবর হোসেন পলাতক রয়েছেন।

Back to top button