জাতীয়

দমনপীড়নে ভূমিকার ভিত্তিতে পু’লিশদের পদোন্নতি দেয়া হয়: নুর

পু’লিশের পদোন্নতি পদ্ধতির কঠোর সমালোচনা করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর। তিনি বলেছেন, সাধারণ জনতার উপর দমনপীড়ন এবং কর্মক’র্তাদের নিজেদের অ’পকর্মের উপর ভিত্তি করে পু’লিশদেরকে পদোন্নতি দেয়া হয়।

আজ সোমবার (০৩ মে) রাজধানীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে অ’ভিভাবক ও নাগরিক সমাজের উদ্যোগে আয়োজিত প্রতিবাদ সভায় এ কথা বলেন।

নুর বলেন, এর আগে কোটা সংস্কার আ’ন্দোলনে দমন নি’পীড়ন চালানো পু’লিশদের পদোন্নতি দেয়া হয়েছিল। সেসময় কোটা সংস্কার এবং নিরাপদ সড়ক আ’ন্দোলনের দমনপীড়নে যারা ভুমিকা রেখেছিল পদোন্নতির ক্যাটাগরিতে তাদেরকে বিবেচনা করা হয়েছিল।

নিজ সংগঠনের নেতা-কর্মীদের মুক্তি দাবি করেন নুর বলেন, আমাদের ছাত্রদের বি’রু’দ্ধে চাঁদাবাজি, কাউকে টেন্ডারবাজির দায়ে কাউকে হ’ত্যা মা’ম’লার আসামী করে ধরে নেয়া হয়েছে। একজন নতুন বিয়ে করে ঢাকায় এসেছিলেন তাকে পর্যন্ত আ’ট’ক করেছে। অমানবিকভাবে একেকজনকে আ’ট’ক করে আ’দা’লতে ঢোকানো হয়েছে। এই আতঙ্কে আম’রা কি থেমে যাব? কখনোই না।

তিনি বলেন, আম’রা কোনো রাজনৈতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে নই, আম’রা সেই কোটা সংস্কার আ’ন্দোলন থেকে শুরু করে কখনো কৃষকের জন্য, কখনো মোস্তাকের মৃ’ত্যু, কখনো গু’ম-খু’ন, কখনো ধ’;র্ষ’;ণের বিচার চেয়ে জনগণের জন্য রাস্তায় নেমেছি। আম’রা জানি আ’ন্দোলন করে এই দানবের মতো স্বৈরাচার সরকার, ফ্যাসিবাদী সরকারকে গুটি কয়েক ছাত্র মিলে হটাতে পারব না। আমাদের নেতাকর্মীদের ‍মুক্তি দিতে হবে।

Back to top button