জাতীয়

মেয়র জাহাঙ্গীরের অনুশা’রীকে পে’টালেন ছাত্রলীগ নেতা!

গাজীপুরের টঙ্গীতে এক আওয়ামী লীগ নেতাকে প্রকাশ্যে পি’টি’য়ে র’ক্তাক্ত করেছেন ছাত্রলীগ নেতা। বুধবার (২৪ নভেম্বর) দুপুর দুইটায় ৫৬নম্বর ওয়ার্ডের মধুমিতা সড়ক এলাকায়।আ’হত আওয়ামী লীগ নেতার নাম মো. আবুল হোসেন (৫৬)। তিনি ওই ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সদস্য সচিব। তিনি মেয়র অনুসারী হিসেবে পরিচিত।

অ’ভিযু’ক্ত ইম’রান খান হৃদয় মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক। মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট আজমত উল্লাহ খান তার ফুফা। এ ঘটনায় আবুল হোসেন বাদী হয়ে সন্ধ্যায় টঙ্গী পূর্ব থা’নায় লিখিত অ’ভিযোগ করেছেন।

আবুল হোসেন জানান, ম’স’জিদ থেকে নামাজ পড়ে বের হয়ে মধুমতি মেগা সিটি ভবনে নিজ অফিসে বসেছিলেন। বেলা দুইটার দিকে হৃদয়ের নেতৃত্বে ১০/১২জন কি’শোর এসে ডেকে মধুমিতা সড়কে নিয়ে যায়। পরে প্রকাশ্যে ঘিরে ধরে চড়-থাপ্পর ও কিল-ঘুষি মা’রে। একপর্যায়ে লাথি দিয়ে রাস্তায় ফেলে বুকের ওপর লাথি মা’রতে থাকে। এতে তিনি র’ক্তাক্ত হন। মা’রধরের ঘটনাটি তারা ভিডিও করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছেড়ে দেয়। মেয়র জাহাঙ্গীর অনুসারী ছাড়া আমা’র কোনো দোষ দেখছি না।

তিনি আরো বলেন, জ’ড়ি’তরা ভরান এলাকার চিহ্নিত মা’দ’ক ব্যবসায়ী ও কি’শোর গ্যাংয়ের সদস্য। তাদের মধ্যে মিম তার দোকানে এসে খেয়ে প্রায়ই বিল না দিয়ে চলে যায়।জানতে চাইলে অ’ভিযু’ক্ত ছাত্রলীগ নেতা ইম’রান খান হৃদয় বলেন, ‘আমি এ ব্যাপারে কিছুই জানি না। ঘটনার সময় আমি বাসার সামনের ভরান ম’স’জিদে ছিলাম। ঘটনার সময় আমি ঘটনাস্থলে ছিলাম না।’

টঙ্গী পূর্ব থা’নার ভা’রপ্রাপ্ত কর্মক’র্তা (ওসি) মো. জাবেদ মাসুদ বলেন, ‘অ’ভিযোগ পেয়ে ঘটনাস্থলে পু’লিশ পাঠানো হয়। ত’দ’ন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

Back to top button