রাজনীতি

‘মেয়র হলে খালেদা জিয়ার মুক্তি ত্বরান্বিত করবো’

আর মাত্র একদিন পরেই অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বহুল আ’লো’চি’ত নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক) নির্বাচন। নির্বাচনকে ঘিরে শেষ সময়ের প্রস্তুতি সেরেছেন সব প্রার্থী। এখন অ’পেক্ষার পালা। নাসিক নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার দৌড়ে আলোচনায় থাকা মেয়রপ্রার্থী অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার মুখোমুখি হয়েছিলেন জাগো নিউজের। তার সংক্ষিপ্ত এ সাক্ষাৎকার নিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ জে’লা প্রতিনিধি মোবাশ্বির শ্রাবণ।

তৈমূর আলম: ঢাকার উচ্চ পদস্থ মেহমানরা নির্বাচনকে প্রভাবিত করার চেষ্টা করছেন। বি’ভ্রান্তি ছড়ানো হচ্ছে। তবে আশা করবো নারায়ণগঞ্জবাসী সজাগ থাকবে। তারা প্রভাবিত হবেন না। ভোটাররা কেন্দ্র যাবেন। সুষ্ঠু পরিবেশে ভোটাররা যে সিদ্ধান্ত দেবে সেটাই মেনে নেব।

তৈমূর আলম: বর্জ্য ব্যবস্থাপনাসহ সেতুর উন্নয়নে কাজ শুরু করবো। এছাড়া জলাবদ্ধতা দূরসহ মশা-মাছি ও যানজট নিরসনের কাজ অগ্রাধিকারের তালিকায় থাকবে। তবে সবকিছুই হবে নাগরিকদের পরাম’র্শে।

জাগো নিউজ: দল আপনাকে অব্যাহতি দিয়েছে। নির্বাচিত হলে আবার কি দলে যোগ দেবেন?
তৈমূর আলম: রাজনীতি করতে হলে দলের পদ পদবী লাগে না। দলের মধ্যে আমা’র অবস্থান আছে। নেতারাও আমা’র সঙ্গে রয়েছেন। একজন সাধারণ সদস্য হিসেবে হলেও দলে আমি আছি। মেয়র নির্বাচিত হলে খালেদা জিয়ার মুক্তি ত্বরান্বিত করা হবে।

তৈমূর আলম: ভোটারদের বলবো নির্বিঘ্নে কেন্দ্রে যাবেন। স্মা’র্ট’কার্ড নিয়ে যাবেন। স্বাচ্ছন্দ্যে ভোট দেবেন। যাকে খুশি ভোট দেবেন। ১৮ বছরের ব্যর্থতার পর জনগণ এখন পরিবর্তন চায়। পরিবর্তনের লক্ষ্যে ভোট দেবেন। এটাই নারায়ণগঞ্জবাসীর কাছে আমা’র আবদার।

Back to top button