জাতীয়

ম’স’জিদ থেকে আ’সা’মি ধরতে গিয়ে মু’সল্লিদের সঙ্গে রেবের হাতাহাতি

আ’সা’মি ধরতে গিয়ে ম’স’জিতদে জুমা’র নামাজ পড়া মু’সল্লিদের সঙ্গে রে’বের সাদা পোশাকধারী সদস্যদের হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। এতে রে’ব সদস্যসহ বেশ কয়েকজন আ’হত হয়েছেন। শুক্রবার (১১ মা’র্চ) পাবনার ঈশ্বরদী উপজে’লার লক্ষীকুন্ডা ইউনিয়নের চর কুড়ুলিয়া গ্রামের জফিরপাড়ার জামে ম’স’জিদের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানান, তার ম’স’জিদে জুমা’র নামাজ আদায় করছিলেন। নামাজ শেষের দিকে পেছন থেকে সাদা পোশাকধার তিন রে’ব সদস্য ম’স’জিদে প্রবেশ করেন। এ সময় ম’স’জিদ থেকে জিহাদ প্রামাণিক নামে একজনকে আ’ট’ক করেন। সঙ্গে সঙ্গেই ম’স’জিদের মু’সল্লিরা উত্তেজিত হয়ে পড়েন। এ অবস্থায় মু’সল্লিরা সাদা পোশাকধারীদের পরিচয় জানতে চাইলে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হয়। এ সময় হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়েন উভ’য়পক্ষ। এতে রে’বসহ কয়েকজন আ’হত হন।

এই ঘটনায় রে’ব-১২ পাবনা ক্যাম্পের কয়েকটি গাড়ি সেখানে উপস্থিত হয়। হাতাহাতির সময় অ’স্ত্র খোয়া গেছে দাবি করে দিনভর ওই এলাকায় অ’ভিযান চালায় রে’ব। সন্ধ্যায় গ্রামবাসীর সঙ্গে সমঝোতা ও অ’স্ত্র পাওয়া গেলে তারা ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন।

গ্রামবাসী জানান, স্থানীয় মাদ্রাসা হাটের ইজারাকে কেন্দ্র করে জফির প্রামাণিকের ছে’লে সন্টু প্রামাণিক ও তার চাচাতো ভাইদের বিরোধ চলছিল। হাটটির ইজারা পান ফারুক-কা’মাল-জিহাদ প্রামাণিকরা। এরপরে একই হাটে আলহাজ মোড়কে কাঁচাবাজার উল্লেখ করে ইজারা নিয়ে আসেন সন্টু প্রামাণিক। এ নিয়ে তাদের মধ্যে চরম বিরোধ চলছিল। গত ২৮ ফেব্রুয়ারি সন্টু প্রামাণিক তার লোকজন নিয়ে কাঁচাবাজারে গেলে তার চাচাতো ভাইয়েরা তাকে অ’ব’রু’দ্ধ করেন। পরে পু’লিশ গিয়ে তাকে উ’দ্ধা’র করে।

এ ব্যাপারে ঈশ্বরদী থা’নার ওসি আসাদুজ্জামান আসাদ বলেন, হাট ইজারাকে কেন্দ্র করে ২৮ ফেব্রুয়ারির ওই ঘটনায় থা’নায় একটি মা’ম’লা হয়েছে। সেটি থা’না পু’লিশই ত’দ’ন্ত করছে। এ মা’ম’লায় রে’ব সদস্যদের অ’ভিযানে যাওয়ার কোনও কারণ দেখি না। অ’ভিযানের বিষয়টিও আমা’রও জানা নেই। তবে ওই এলাকায় রে’বের একটি পি’স্ত’ল খোয়া যাওয়ার কথা শুনেছি। পরে স্থানীয়দের মাধ্যমে অ’স্ত্রটি উ’দ্ধা’র হলে রে’ব সদস্যরা ফিরে আসেন।

এ বিষয়ে রে’ব-১২, পাবনা-ক্যাম্পের সহকারী পরিচালক (সহকারী পু’লিশ সুপার) কি’শোর রায় বলেন, একটি মা’ম’লায় আ’সা’মি ধরতে সেখানে রে’ব সদস্যরা গিয়েছিল। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে পরে বিস্তারিত জানানো হবে। এই বিষয়ে এ মুহূর্তে নিউজ না করার জন্যও অনুরোধ জানান। থা’না পু’লিশ যেখানে মা’ম’লা’টি ত’দ’ন্ত করছেন, সেখানে আপনারা কেন গেলেন- জানতে চাইলে তিনি দাবি করেন, বাদী আমাদের বলার কারণে আমাদের লোকজন সেখানে যায়। খোয়া যাওয়া পি’স্ত’লটি ফিরে পাওয়ার বিষয়টিও স্বীকার করেন।

Back to top button