জাতীয়

হরতা’লে বিএনপির সম’র্থন চায় না সিপিবি

দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির প্রতিবাদে ২৮ মা’র্চ বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) ডা’কা হরতা’লে বিএনপির সম’র্থন প্রত্যাখ্যান করেছে পার্টির কেন্দ্রীয় সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা কম’রেড শাহ আলম।

রোববার (১৩ মা’র্চ) চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের এস রহমান হলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ সিদ্ধান্তের কথা জানান তিনি।

কম’রেড শাহ আলম বলেন, বিএনপির সম’র্থন আম’রা চাই না। তাদের কোম’রে জো’র থাকলে তারা আলাদাভাবে আ’ন্দোলন করুক। তারাও সাম্রাজ্যবাদের পক্ষে। আমাদের যু’দ্ধ সাম্রাজ্যবাদ, পুঁজিবাদি সমাজের বিপক্ষে। আমা’র কারও পাওয়ার গেমের হাতিয়ার হতে চাই না। আম’রা নির্বাচনে যেতে চাই। আওয়ামী লীগ, বিএনপির বাহিরে আম’রা বিকল্প হতে চাই।

বাংলাদেশের রাজনীতি আমলা, ব্যবসায়ীদের দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হচ্ছে দাবি করে তিনি বলেন, রাজনীতি নিয়ন্ত্রণ করে আমলা ও ব্যবসায়ীদের একটি সার্কেল। এ বিশাল সার্কেল ভাঙতে না পারলে দেশের সামগ্রিক উন্নয়ন ক্ষতিগ্রস্ত হবে।

ডিজিটাল নিরাপত্তার নামে সাংবাদিকদের স্বাধীনতা রুদ্ধ করা হয়েছে জানিয়ে কম’রেড শাহ আলম বলেন, লুটেরাদের স্বার্থ হাসিলে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন করা হয়েছে। এখন চাইলেও সাংবাদিকরা সব কিছু প্রকাশ করতে পারেন না। আম’রা যা বলছি তাও আপনারা প্রকাশ করতে পারেন না।

তিনি বলেন, দেশ এখন দুইভাগে বিভক্ত। এর মধ্যে ৫ ভাগ একপাশে আর ৯৫ ভাগ অন্য পাশে। এই ৫ ভাগ সব ধরনের সুযোগ সুবিধা ভোগ করছে। অন্যদিকে ৯৫ ভাগ বিভিন্ন কিছু থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। ওই ৫ ভাগ গণতন্ত্র নিয়ন্ত্রণ করে। এই অবস্থা থেকে বেরিয়ে আসা জরুরি।

দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে এ মুক্তিযোদ্ধা বলেন, দুই হাজার কোটি টাকা লোপাট করার পর ভ্যাট মুক্ত করেছে সরকার। খাদ্য নিরাপত্তার জন্য কেন স্থায়ী রেশন ব্যবস্থা চালু করছে না সরকার। যেখানে যাবেন সব জায়গায় সিন্ডিকেট। এই সিন্ডিকেট ভাঙতে চাই না আম’রা। আম’রা কারও ক্ষমতায় যাওয়ার বাহন হতে চাই না।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সিপিবি চট্টগ্রাম জে’লার সভাপতি আশোক সাহা ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্ম’দ জাহাঙ্গীর, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জে’লা সিপিবির সভাপতি কানাই লাল দাশ, সাধারণ সম্পাদক শওকত আলী প্রমুখ।

Back to top button