জাতীয়

মায়ের মৃ’ত্যুর এক ঘণ্টা পর মা’রা গেল মে’য়েও

নরসিংদীর মনোহরদীতে মায়ের মৃ’ত্যুর খবর পাওয়ার এক ঘণ্টা পর মে’য়েরও মৃ’ত্যু হয়েছে। সোমবার (১৪ মা’র্চ) রাতে মনোহরদী উপজে’লার কৃষ্ণপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, বার্ধক্যজনিত কারণে দীর্ঘদিন ধরে নানা রোগে আ’ক্রা’ন্ত ছিলেন হাছেনা বানু (৮০)। সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে নিজ বাড়িতে তার মৃ’ত্যু হয়।

হাছেনা বানু কৃষ্ণপুর গ্রামের নিজাম উদ্দিনের স্ত্রী’। তিনি তিন ছে’লে এবং তিন মে’য়ের জননী ছিলেন। মুঠোফোনে মায়ের মৃ’ত্যুর খবর শুনে মে’য়ে নূরুন্নাহার দয়া (৬০) দ্রুত বাবার বাড়িতে আসেন। বাড়িতে প্রবেশ করার সঙ্গে সঙ্গেই জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন নূরুন্নাহার। এসময় তার স্বজনরা তাকে মনোহরদী উপজে’লা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে আসেন। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক নূরুন্নাহারকে মৃ’ত ঘোষণা করেন।
নূরুন্নাহার একই উপজে’লার লেবুতলা ইউনিয়নের নরেন্দ্রপুর গ্রামের আব্দুল মান্নানের স্ত্রী’। তিনি পাঁচ মে’য়ে এবং এক ছে’লের মা ছিলেন।

নূরুন্নাহারের ভাই মো. বিল্লাল হোসেন বলেন, মা মা’রা যাওয়ার সংবাদ শুনে বাড়িতে এসেই অ’জ্ঞা’ন হয়ে পড়েন নূরুন্নাহার। পরে তাকে মনোহরদী উপজে’লা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তাকে মৃ’ত ঘোষণা করেন। দুইজনকে আমাদের পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে।

কৃষ্ণপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান এম’দাদুল হক আকন্দ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বার্ধক্যজনিত কারণে মায়ের মৃ’ত্যু হয়। এ খবর শুনে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে তার মে’য়েও মা’রা যান।

Back to top button