আন্তর্জাতিক

হা’ই’কো’র্টের রায়ের পর কর্ণাট’কে বোরকা পরে ঢুকতে পারলেন না ৮ শিক্ষার্থী

ই’স’লা’ম চর্চায় হিজাব মোটেই অ’পরিহার্য নয়। মঙ্গলবার ভা’রতের কর্ণাট’ক হা’ই’কো’র্ট এ রায় দিয়েছেন। এ রায়ের পরই দেশটি কর্ণাট’ক রাজ্যের একটি জে’লায় ৮ শিক্ষার্থী বোরকা পরে পরীক্ষা হলে প্রবেশ করতে পারেননি। ভা’রতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে এমনটি বলা হয়েছে।

এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, কর্ণাট’কের ইয়াদগির জে’লার কেমভাভি গ্রামের পিইউ কলেজে হিজাব পরে প্রস্তুতিমূলক পরীক্ষা দিতে আসা আট শিক্ষার্থীকে ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে। হা’ই’কো’র্টের অন্তর্বর্তী নিষেধাজ্ঞার আগে, এই কলেজে শিক্ষার্থীদের ক্লাসরুমের ভেতরে হিজাব পরার অনুমতি দেয়।

গতকাল সোমবার এই শিক্ষার্থীরা পরীক্ষা দিতে পারলেও আজ মঙ্গলবার তাঁরা পরীক্ষা দিতে পারেনি। কর্তৃপক্ষ তাঁদের বোঝাতে ব্যর্থ হলে তাদের কলেজ চত্বর ছেড়ে যেতে বলা হয়।ইয়াদগীর জে’লা কলেজ বিভাগের উপপরিচালক চন্দ্রকান্ত জে হলি বলেন, কলেজ আগে হিজাবের অনুমতি দিয়েছিল কিন্তু আম’রা কেবল হা’ই’কো’র্টের অন্তর্বর্তী আদেশ অনুসরণ করেছি। আম’রা শিক্ষার্থীদের হিজাব না পরার জন্য বোঝানোর চেষ্টা করেছি। কিন্তু আজ তাঁরা বোরকা খুলতে অস্বীকৃতি জানায়।

বিজেপি শাসিত ভা’রতের কর্ণাট’ক রাজ্যে অশান্তির জেরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে হিজাব পরে প্রবেশের ওপর সাময়িক নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল সরকার। একই সঙ্গে নিষেধাজ্ঞা জারি হয় হিন্দুদের গেরুয়া ওড়না পরে প্রবেশেও।হিজাব নিষিদ্ধ ঘোষণার প্রতিবাদে বেশ কিছু ছাত্রছা’ত্রী আ’দা’লতের দ্বারস্থ হয়। তাঁদের দাবি ছিল, হিজাব পরা তাদের সাংবিধানিক অধিকার। রাজ্য সরকার সেই অধিকার কেড়ে নিচ্ছে।

৫ ফেব্রুয়ারি কর্ণাট’ক সরকার হিজাব ও ওড়না নিষিদ্ধ ঘোষণার পরই আ’দা’লতের দ্বারস্থ হয়েছিল শিক্ষার্থীরা। ১০ ফেব্রুয়ারি হা’ই’কো’র্ট বহাল রাখে হিজাবের ওপর সাময়িক নিষেধাজ্ঞা।১১ দিন শুনানির পর মঙ্গলবার কর্ণাট’ক হা’ই’কো’র্ট জানিয়ে দেন, হিজাব মোটেই অ’পরিহার্য নয়। তাই নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকছে। একই সঙ্গে হিজাবের পক্ষে দাখিল করা পাঁচটি মা’ম’লাও খারিজ করে দেন আ’দা’লত।

 

Back to top button