জাতীয়

কাল থেকে মোবাইল ডাটার মেয়াদ থাকছে না!

অবশেষে মোবাইল ডেটার মেয়াদহীনতার যুগে রয়েছে বাংলাদেশ। বিশ্বে এই প্রথমবারের মতো মোবাইল ডেটার কোন মেয়াদ রাখার সীমাবদ্ধতা থেকে বেরিয়ে আসছে বাংলাদেশ। গ্রাহক স্বার্থ বিবেচনায় টেলিট’কের পর অন্য অ’পারেটরসমূহ পর্যায়ক্রমে এই ব্যবস্থা চালু করবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

গতকাল মঙ্গলবার ১৫ মা’র্চ ঢাকায় বিটিআরসি মিলনায়তনে মোবাইল অ’পারেটরসমূহের ডেটা এবং ডেটা সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন প্যাকেজ স’ম্প’র্কিত নতুন নির্দেশনা বাস্তবায়ন বিষয়ক অনুষ্ঠানে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার গ্রাহক স্বার্থ বিবেচনায় এক ঘোষণায় বলেন, ‘গ্রাহক স্বার্থ রক্ষায় রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন টেলিট’কের ইন্টারনেট ডেটার মেয়াদের সীমাবদ্ধতা থাকবে না। যত দিন ডেটার ব্যালেন্স থাকবে ততদিন গ্রাহক তার ক্রয়কৃত ডেটা ব্যবহার করতে পারবেন। আমা’র ডেটা আমি ব্যবহার করবো, যতদিন ব্যালেন্স থাকবে ততদিন করবো- গ্রাহকদের এটাই দাবি। আম’রা সেই দাবিই বাস্তবায়ন করছি’।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম’দিন ১৭ মা’র্চ থেকে টেলিট’ক এই ব্যবস্থা কার্যকর করবে বলেও জানান তিনি। অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বিটিআরসি’র মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. নাসিম পারভেজ। ডাক ও টেলিযোগাযোগ সচিব মো. খলিলুর রহমান, বিটিআরসি’র ভাইস চেয়ারম্যান সুব্রত রায় মৈত্র, টেলিট’কের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. সাহাব উদ্দিন, এমটবের সেক্রেটারি জেনারেল ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এস এম ফরহাদ (অব.) এবং গ্রামীণফোন, রবি ও বাংলা লিংকের প্রতিনিধিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে মোবাইল অ’পারেটরদের প্রতিনিধিগণ মোবাইল ফোনের ডেটা প্যাকেজ ব্যবস্থাপনা সহ’জীকরণে তাদের প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন এবং এ বিষয়ে বিটিআরসি’র গাইড লাইন অনুযায়ী কার্যকর উদ্যোগ গ্রহণের বিষয়টি অবহিত করেন।

এ সময় মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, ‘ডিজিটাল সেবা সবার জন্য সহ’জলভ্য এবং ন্যায় সঙ্গত হোক এটাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারের লক্ষ্য। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বে ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠার জন্য আম’রা লড়াই করছি। এই লড়াইয়ে টেলকো ইন্ডাস্ট্রির অ’পরিসীম ভূমিকা রয়েছে। ডেটা যত বেশি সম্প্রসারণ করতে পারবো ভবিষ্যত প্রজন্মের জন্য তত বেশি সুযোগ সৃষ্টি করতে পারবো। তিনি কলড্রপ সংকট সমাধানে যথাযথ উদদ্যোগ গ্রহণের প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্বারোপ করেন। যতটুকু ডেটা গ্রাহক ক্রয় করবেন তার পুর্ণাঙ্গ ব্যবহারে সংশ্লিষ্টদের উদ্যোগ নিতে হবে।’

 

Back to top button