আন্তর্জাতিক

১৫ মা’র্চকে ই’স’লা’মভীতি প্রতিরোধ দিবস ঘোষণা করল জাতিসঙ্ঘ

১৫ মা’র্চকে ই’স’লা’মভীতি প্রতিরোধ দিবস হিসেবে ঘোষণা করেছে জাতিসঙ্ঘ। মঙ্গলবার জাতিসঙ্ঘের সাধারণ পরিষদে সর্বসম্মতি ক্রমে এ সংক্রান্ত একটি প্রস্তাব গৃহীত হওয়ার ফলে এটা সম্ভব হয়েছে।

মঙ্গলবার জাতিসঙ্ঘের সাধারণ পরিষদে ই’স’লা’মী সহযোগিতা সংস্থা ওআইসি-এর পক্ষে পা’কিস্তান এ প্রস্তাব উত্থাপন করে। ২০১৯ সালের ১৫ মা’র্চ তারিখে নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চ শহরের দু’ম’স’জিদে উগ্রবাদী হা’ম’লার ঘটনাকে স্ম’রণ করে এ প্রস্তাব উত্থাপন করা হয়। ওই সময় নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চ শহরের দু’ম’স’জিদে এ ব’ন্দু’কধারী (খ্রিস্টান) ব্যক্তির উগ্রবাদী হা’ম’লার কারণে ৫১ (মু’সলিম) ব্যক্তি নি’হ’ত ও ৪০ জন আ’হত হন।

এ প্রস্তাব উত্থাপনের সময় জাতিসঙ্ঘে নিযু’ক্ত পা’কিস্তানের প্রতিনিধি মুনির আকরাম বলেন, বিশ্বে মু’সলিম বিদ্বেষী তৎপরতা এখন একটি বাস্তব বিষয়ে পরিণত হয়েছে। এটা বিশ্বের বিভিন্ন অংশে বিস্তারও লাভ করছে।

জাতিসঙ্ঘের সাধারণ পরিষদের সভাকক্ষে পা’কিস্তানের প্রতিনিধি বলেন, মু’সলিমবিরোদী বৈষম্য, শত্রুতা ও স’হিং’সতা মানবতাবিরোধী অ’প’রা’ধ। এটা ধ’র্ম ও বিশ্বা’সের সংক্রান্ত অধিকারের লঙ্ঘন। বর্তমান সময়ে এ বিষয়টা খুবই ভ’য়াবহ। এটা এক ধরনের বর্ণবাদ। এ কারণে মু’সলমান ব্যক্তিরা খা’রা’প ধারণা, বিদেশাতঙ্ক ও নিম্ন ধরনের আচরণের শিকার হচ্ছেন। এছাড়া মু’সলিম না’রীরা তাদের ধ’র্মীয় পোষাক পরার কারণে নি’পীড়ন ও বৈষম্যের শিকার হচ্ছেন।১৫ মা’র্চকে ই’স’লা’মভীতি প্রতিরোধ দিবস ঘোষণা করার বিষয়টিকে স্বাগত জানিয়েছেন পা’কিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইম’রান খান।

Back to top button