জাতীয়

বিএনপির জে’লা সভাপতিসহ ১২ জনের বি’রু’দ্ধে মা’ম’লা, গ্রে’প্তা’র ৪

নাকশকতার পরিকল্পনা ও পু’লিশের উপর হা’ম’লার অ’ভিযোগে ঢাকা জে’লা বিএনপির সভাপতি ডা: দেওয়ান মো: সালাউদ্দিন বাবুসহ বিএনপির ১২ নেতাকর্মীর নামে আশুলিয়া থা’নায় মা’ম’লা দায়ের করা হয়েছে। এ ঘটনায় ৪ জনকে গ্রে’প্তা’র করেছে পু’লিশ।

বৃহস্পতিবার দুপুরে গ্রে’প্তা’রকৃত চারজনকে আ’দা’লতে পাঠানো হয়েছে। এর আগে বুধবার রাতে মা’ম’লা’টি করেন আশুলিয়া থা’নার এসআই সুব্রত রায়।

গ্রে’প্তা’ররা হলেন – আশুলিয়ার পাথালিয়া ইউনিয়নের ঘুঘুদিয়া এলাকার নবী হোসেনের ছে’লে শাহিন মিয়া (২৪), মোসলেম উদ্দিনের ছে’লে মো: সোহান (২০), মো: জজ আলীর ছে’লে মো: মালেক (৩৫) ও শেহের আলীর ছে’লে মো: জসিম (৪৮)।

মা’ম’লায় পলাতক আ’সা’মিরা হলেন – আশুলিয়ার জিরাবো এলাকার মৃ’ত দেওয়ান ইদ্রিসের ছে’লে দেওয়ান মো: সলাউদ্দিন বাবু (৬০), আব্দুর মালেকের ছে’লে সোবাহান ও জহিরুল, মৃ’ত রফিক মাতব্বরের ছে’লে হাবিবুর রহমান (৪২), চাকল গ্রামের মৃ’ত আবদুল্লাহের ছে’লে আবদুস সালাম (৫০), মৃ’ত তা’লেবর প্রামাণিকের ছে’লে আব্দুল হাই আবু তারু মাদবর (৫৮), পানধোয়া গ্রামের মৃ’ত আতাউর রহমানের ছে’লে কাজিম উদ্দিন (৪৫) ও গোকুলনগর গ্রামের মৃ’ত ইয়াজ উদ্দিনের ছে’লে আজিজুল হক আয়জল (৫৮)।

মা’ম’লার বিবরণ থেকে জানা যায়, বুধবার দুপুরে আ’সা’মিরা আশুলিয়ার ঘুঘুদিয়ায় নাশকতা ও দেশকে অস্থিতিশীল পরিবেশ করার উদ্দেশ্যে সমবেত হয়ে রাস্তা বন্ধ করে দেন। সালাউদ্দিন বাবুর নেতৃত্বে এই পরিকল্পনা করা হয়। খবর পেয়ে পু’লিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে তাদের সরিয়ে দিতে চাইলে পু’লিশের ওপর ইট-পাট’কেল নিক্ষেপ ও হা’ম’লা চালান আ’সা’মিরা। হা’ম’লায় দুই পু’লিশ সদস্য আ’হত হন। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে ৪ জনকে আ’ট’ক করলেও বাকিরা পালিয়ে যান।

এ বিষয়ে আশুলিয়া থা’নার এসআই সুব্রত রায় বলেন, গ্রে’প্তা’র আ’সা’মিদের বি’রু’দ্ধে মা’ম’লা দায়ের করা হয়েছে। তাদের দুপুরে আ’দা’লতে পাঠানো হয়েছে। বাকি আ’সা’মিদের গ্রে’প্তা’রের চেষ্টা চলছে।

 

Back to top button