জাতীয়

প্রকাশ্যে মাদ্রাসাছা’ত্রীকে বখাটের চড়-ঘুষি, লোকলজ্জায় আত্মহ’ত্যা

চুয়াডাঙ্গায় এক মাদ্রাসাছা’ত্রীকে প্রকাশ্যে চড়-ঘুষি মে’রেছে এক বখাটে যুবক। এ ঘটনার পর লোকলজ্জায় ওই ছা’ত্রী (১৭) গলায় ফাঁ’স দিয়ে আত্মহ’ত্যা করেছে বলে জানা গেছে।রোববার সন্ধ্যায় চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার হকপাড়া থেকে ওই ছা’ত্রীর লা’শ উ’দ্ধা’র করা হয়।

নি’হ’ত মাদ্রাসাছা’ত্রী মাসুমা আক্তার ওই এলাকার চা দোকানি আমিনুল ই’স’লা’মের মে’য়ে। মাসুমা চুয়াডাঙ্গা ফাজিল মাদ্রাসার আলিম (এইচএসসি) প্রথম বর্ষের ছা’ত্রী ছিল।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মাদ্রাসাছা’ত্রী মাসুমা আক্তার পড়াশোনার পাশাপাশি মাঝেমধ্যে অ’সুস্থ বাবার চা দোকানও দেখাশোনা করত। গত শুক্রবার সকালে চুয়াডাঙ্গা রেলস্টেশনসংলগ্ন তার বাবার চায়ের দোকান পরিষ্কার করতে যায় মাসুমা। সে সময় দোকানে জে’লা শহরের আরামপাড়ার মোবারকের ছে’লে কালামের সঙ্গে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী পরিচয়ে একজনের তর্কাতর্কি হয়।

একপর্যায়ে তাদের মধ্যে শুরু হয় হাতাহাতি। দোকানের মধ্যে মা’রামা’রি করতে দেখে মাসুমা আক্তার তাদের নিষেধ করেন। এতেই ক্ষিপ্ত হয়ে মাসুমাকে প্রকাশ্যে চড়-ঘুষি মা’রে কালাম। এর পর হাতুড়ি নিয়ে পে’টাতে গেলে পালিয়ে পাশের একটি বাড়িতে আশ্রয় নেয় মাসুমা।

পরে মাসুমা আক্তারের বাবা-মাকেও অকথ্য ভাষায় গালাগাল করে অ’ভিযু’ক্ত কালাম। এ ছাড়া কালাম দীর্ঘদিন ধরে পথেঘাটে মাসুমাকে উ’ত্ত্য’ক্ত করে আসছিল বলেও এলাকাবাসীর অ’ভিযোগ।

এদিকে বিষয়টি নিয়ে এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিরা সালিশবৈঠকে বসার আশ্বা’স দেন। তবে দুদিন পেরিয়ে গেলেও তারা সালিশে বসেননি। শা’রীরিকভাবে লা’ঞ্ছিত হওয়ার বিচার না পেয়ে রোববার বেলা ৫টার দিকে নিজঘরে গলায় ফাঁ’স দেয় মাসুমা।পরে সন্ধ্যায় উ’দ্ধা’র করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতা’লে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃ’ত ঘোষণা করেন।

পরিবারের সদস্যরা জানান, চার বোনের মধ্যে মাসুমা আক্তার ছিল সবার ছোট। শহরের আরামপাড়ার মোবারক হোসেনের ছে’লে আবুল কালাম প্রায়ই মাসুমাকে উ’ত্ত্য’ক্ত করত। এর আগে অ্যাসিড মা’রার হু’মকিও দিয়েছিল সে।
গত শুক্রবার দোকানের মধ্যে কালামসহ দুজন মা’রামা’রি করে। এতে প্রতিবাদ করে মাসুমা আক্তার। এতেই ক্ষিপ্ত হয়ে মাসুমাকে চড়-ঘুষি মা’রে কালাম। এতে ঘৃ’ণায় রোববার বিকালে গলায় ফাঁ’স দিয়ে আত্মহ’ত্যা করে মাসুমা।

সদর হাসপাতা’লের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক উৎপলা বিশ্বা’স জানান, মৃ’ত অবস্থায় মাসুমাকে হাসপাতা’লের জরুরি বিভাগে নেওয়া হয়। ধারণা করা হচ্ছে, হাসপাতা’লে পৌঁছানোর আগেই তার মৃ’ত্যু হয়।চুয়াডাঙ্গা সদর থা’নার ওসি মোহাম্ম’দ মহসীন জানান, নি’হ’ত মাদ্রাসাছা’ত্রীর লা’শ ময়নাত’দ’ন্তের জন্য সদর হাসপাতাল ম’র্গে রাখা হয়েছে।

চুয়াডাঙ্গার অ’তিরিক্ত পু’লিশ সুপার (সদর সার্কেল) আনিছুজ্জামান লালন বলেন, বাবা অ’সুস্থ হওয়ায় মাসুমা পড়াশোনার পাশাপাশি দোকান দেখাশোনা করত। শুক্রবার দোকানের মধ্যে স্থানীয় এক যুবক তাকে চড়-ঘুষি মা’রে। এতে লোকলজ্জায় মে’য়েটি আত্মহ’ত্যা করেছে। সুরতহাল প্রতিবেদন শেষে ময়নাত’দ’ন্তের জন্য ম’রদেহ সদর হাসপাতা’লের ম’র্গে পাঠানো হয়েছে।আম’রা ঘটনাটি ত’দ’ন্ত করছি। অ’ভিযু’ক্তকে আ’ট’কের জন্য অ’ভিযান চালাচ্ছি।

Back to top button