জাতীয়

শবেবরাতের রাতে তবারক বিতরণ নিয়ে বিরোধে যুবক খু’ন

কুমিল্লায় ছু’রিকাঘাতে মাসুক মিয়া (২৮) নামে এক যুবক নি’হ’ত হয়েছেন। এসময় আ’হত হয়েছেন মাসুকের বড় ভাই জালাল। রবিবার (২০ মা’র্চ) রাত ৭টার দিকে জে’লার আদর্শ সদর উপজে’লার মাঝিগাছা গ্রামে মাসুকদের বাড়ির সামনেই এ খু’নের ঘটনা ঘটে।

নি’হ’ত মাসুক মিয়া ওই গ্রামের ফরিদ মিয়ার ছে’লে। সে পেশায় একজন রং মিস্ত্রী’। এদিকে ঘটনাস্থলেই এলাকাবাসী ঘা’ত’ক নাসির, অহিদ ও তার সহযোগীদের ধাওয়া করে গণপি’টুনি দেয় এবং আ’ট’ক করে চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতা’লে ভর্তি করে। সেখান থেকে এক্স-রে করার নামে পালিয়ে যাবার সময় প্রধান অ’ভিযু’ক্ত আ’হত নাসির এবং মামুন নামে দুই জনকে আ’ট’ক করে পু’লিশ। তবে হাসপাতা’লে ভর্তি অহিদ নামে আরেক অ’ভিযু’ক্তকে রাত সাড়ে ১১ টা পর্যন্ত খুঁজে পায় নি পু’লিশ।

নি’হ’ত মাসুকের স্ত্রী’ রুবি জানান, গত শুক্রবার শবে-বরাতের রাতে স্থানীয় ম’স’জিদে তাবারুক বিতরণকে কেন্দ্র করে মাসুকের সাথে প্রতিবেশী নাসিরের বিরোধ চলে আসছিল। এ নিয়ে রোববার রাত ৭টার দিকে উভ’য়ের মধ্যে ফের কথা কা’টাকাটি হয়। একপর্যায়ে নাসির ও তার সহযোগি অহিদসহ আরো ৫-৬ জন যুবক মাসুককে মা’রধর করে এবং তাকে ছু’রিকাঘাত করলে সে গুরুতর আ’হত হয়।

এসময় ছোট ভাইকে রক্ষা করতে এসে জালালও আ’হত হন। পরে স্থানীয়রা উ’দ্ধা’র করে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতা’লে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মাসুককে মৃ’ত ঘোষণা করেন। এদিকে এলাকার উত্তেজিত লোকজন ঘটনার পর ঘা’ত’ক নাসির ও সহযোগিদের গণপি’টুনি দিয়ে একই হাসপাতা’লে ভর্তি করে। তবে মাসুকের সাথে অ’ভিযু’ক্ত অহিদের মোটর সাইকেল কেনা সংক্রান্ত পূর্ব শত্রুতাও রয়েছে বলে জানান রুবি।

তিনি আরো জানান, রোববার বিকেলে বাড়ি ফিরে দুই মে’য়ে তাবাসসুম এবং মিথিলার সাথে খাবার খায় মাসুক। সন্ধ্যার পর বাড়ি থেকে বের হয়ে বাড়ির সামনের একটি দোকানে যায় মাসুক। সেখানেই অ’তর্কিত হা’ম’লা হয় তার উপর।
নি’হ’ত মাসুকের ভাই জালাল জানান, প্রধান অ’ভিযু’ক্ত নাসির এলাকায় এক জন মা’দ’ক ব্যবসায়ি। তার বি’রু’দ্ধে একাধিক মা’ম’লাও রয়েছে। তবে এমন তুচ্ছ কারন নিয়ে নাসির, অহিদরা তাকে(মাসুককে) মে’রে ফেলবে তা চিন্তা করা যায় না। আম’রা জ’ড়ি’ত সবার দ্রুত গ্রে’প্তা’র ও শা’স্তি দাবি করছি।

রাত ১০টার দিকে কোতোয়ালি মডেল থা’নার পরিদর্শক (ত’দ’ন্ত) কমল কৃষ্ণ ধর জানান, ঘটনার খবর পেয়ে পু’লিশ হাসপাতা’লে গিয়ে নি’হ’তের ম’রদেহ হেফাজতে নেয়। স্বজনদের সাথে কথা বলে তাদের দেয়া অ’ভিযোগ এবং তথ্য অনুসারে দুই জনকে আ’ট’ক করা হয়েছে। পলাতক অন্য অ’ভিযু’ক্তদের আ’ট’ক করতে অ’ভিযান চালাচ্ছে পু’লিশ। রাত সাড়ে ১১টা পর্যন্ত এই খু’নের ঘটনায় কোন মা’ম’লা হয় নি।

Back to top button