জাতীয়

অ’বৈ’ধ অ’স্ত্রধারীদের যে হুশিয়ারি দিলেন হানিফ

পাহাড়ে অ’বৈ’ধ অ’স্ত্রধারী স’ন্ত্রা’সী সংগঠনগুলোর প্রতি কঠোর হুশিয়ারি উচ্চারণ করে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেছেন, শেষ অনুরোধে বলছি- পার্বত্য অঞ্চলে যারা অ’বৈ’ধ অ’স্ত্র নিয়ে বিভিন্ন দল করছেন এবং মানুষকে জি’ম্মি করে চাঁদাবাজি, অ’প’হ’রণ, খু’ন-খারাবি করে সন্ত্রাস চালাচ্ছেন আপনারা দ্রুত অ’স্ত্র ছাড়ুন। না হয় কঠোর অ’ভিযান পরিচালিত হবে। তখন কোথাও লুকিয়ে থাকতে পারবন না। কেউ টিকে থাকতে পারবেন না। পাহাড়ের অ’বৈ’ধ অ’স্ত্র উ’দ্ধা’র ও সন্ত্রাস দমনে সরকার সর্বোচ্চ পদক্ষেপের পরিকল্পনা নিয়েছে। পাহাড়ে কঠোর হস্তে স’ন্ত্রা’সীদের নির্মূল করা হবে।

সোমবার রাঙামাটিতে অনুষ্ঠিত জে’লা আওয়ামী লীগের তৃণমূল প্রতিনিধি সভায় প্রধান অ’তিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন মাহবুব-উল আলম হানিফ।

দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত সভায় দলটির জে’লা, উপজে’লা, ইউনিয়ন, ওয়ার্ডসহ তৃণমূলের নেতারা তাদের সমস্যার কথা তুলে ধরে বক্তব্য দেন।
এ সময় জে’লা আওয়ামী লীগ সভাপতি দীপংকর তালুকদার, সাধারণ সম্পাদক মো. মুছা মাতব্বরসহ দলটির তৃণমূলের নেতারা বলেন, পাহাড়ে অ’বৈ’ধ অ’স্ত্রধারীদের আধিপত্য, চাঁদাবাজি, খু’ন, অ’প’হ’রণসহ বেপরোয়া স’ন্ত্রা’সী কর্মকা’ণ্ডে দলীয় নেতাকর্মী ও সাধারণ জনগণ কারও শান্তি নেই। সবক্ষেত্রে তাদের চাঁদাজিতে মানুষ অ’তিষ্ঠ। তাদের অ’বৈ’ধ অ’স্ত্রের হু’মকির মুখে জি’ম্মি পাহাড়ের মানুষ। পাহাড়ি লোকজনকে আওয়ামী লীগের রাজনীতি করতে বাধা দিচ্ছে স’ন্ত্রা’সীরা। সর্বশেষ ১৭ মা’র্চ রাতে রাঙামাটি শহরেই সদর উপজে’লা ছাত্রলীগের উপ-প্রচার সম্পাদক জয় ত্রিপুরাকে ছু’রিকাঘাতে নৃ’শং’সভাবে খু’ন করা হয়েছে। অবিলম্বে জয় ত্রিপুরা হ’ত্যাকারীদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় এনে তাদের বিচার দাবি করেছেন রাঙামাটি জে’লা আওয়ামী লীগ নেতারা।

সভায় জে’লা আওয়ামী লীগের তৃণমূল নেতাদের এসব বক্তব্যে দলটির কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেন, সন্ত্রাস আর শান্তি একসঙ্গে চলতে পারে না। অ’বৈ’ধ অ’স্ত্র দিয়ে সন্ত্রাস বেশি দিন টিকতে পারে না। অ’স্ত্র দিয়ে পৃথিবীর কোথাও শান্তি আসেনি। বিএনপি-জামায়াতসহ দেশের সব জ’ঙ্গিগোষ্ঠীর সন্ত্রাস সরকার কঠোর হস্তে দমন করেছে। রাঙামাটিসহ পার্বত্য চট্টগ্রামেও সব স’ন্ত্রা’সীকে সমূলে নির্মূল করা হবে। এজন্য যাতে সর্বোচ্চ কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া হয়, সে ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীকে জানানো হবে। যে কোনো মূল্যে পার্বত্য চট্টগ্রামে শান্তি প্রতিষ্ঠা করা হবে।

তিনি বলেন, সরকার ইতোমধ্যে পাহাড়ে অ’বৈ’ধ অ’স্ত্র উ’দ্ধা’রসহ কঠোর হস্তে সন্ত্রাস নির্মূলের পরিকল্পনা নিয়েছে। তাই এখনও সময় আছে, যারা পাহাড়ে অ’স্ত্র নিয়ে মানুষকে জি’ম্মি করে রেখেছেন- আপনরা দ্রুত অ’স্ত্র ছেড়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে শান্তির পথে এগিয়ে আসুন। সন্ত্রাস করে কখনও টিকে থাকতে পারবেন না। ইতোমধ্যে যারা পার্বত্য এলাকায় হ’ত্যাকা’ণ্ডে জ’ড়ি’ত হয়েছে তাদের প্রত্যেককে আইনের আওতায় এনে তাদের বিচারের ব্যবস্থা করা হবে। পাহাড়ে মেঘ কে’টে যাবে, চাঁদের হাসি আসবে।

আগামী ২৪ মে রাঙামাটি জে’লা আওয়ামী লীগের সম্মেলনের সময়সূচি ঘোষণা করে তার আগেই মেয়াদোত্তীর্ন সব কমিটির সম্মেলন সম্পন্ন করতে জে’লা কমিটিকে নির্দেশ দিয়েছেন হানিফ।

সকাল সাড়ে ১০টায় শুরু শহরের রাঙামাটি ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট প্রাঙ্গণে আয়োজিত জে’লা আওয়ামী লীগের দিনব্যাপী তৃণমূল প্রতিনিধি সভায় সভাপতিত্ব করেন রাঙামাটি জে’লা আওয়ামী লীগ সভাপতি দীপংকর তালুকদার এমপি।

এতে প্রধান বক্তা ছিলেন দলটির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন এমপি। এছাড়া ধ’র্মবিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা ও উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ই’স’লা’ম আমিন প্রমুখ বিশেষ অ’তিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠান পরিচালনা করেছেন জে’লা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. মুছা মাতব্বর। পরে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

Back to top button