জাতীয়

ব্যবসায়ীর গুদাম থেকে টিসিবির পণ্য উ’দ্ধা’র

গাজীপুর মহানগরীর বোর্ডবাজারে এক ব্যবসায়ীর গুদাম থেকে টিসিবির তেল, চিনি ও ডাল উ’দ্ধা’র হয়েছে। গ্রে’প্তা’র করা হয়েছে ব্যবসায়ী মো. শাহীনকে (৩৩)।

গাছা থা’নার এসআই মোশারফ হোসেন জানান, রোববার রাত ১১টার দিকে ৯৯৯ নম্বরে ফোন পেয়ে বোর্ডবাজারের মোহার খান ওয়াকফ এস্টেট মা’র্কে’টে মো. শাহীনের গোডাউনে অ’ভিযান চালানো হয়। এ সময় টিসিবির মোড়কযু’ক্ত ৩৭ বোতল সয়াবিন তেল (৭৪ লিটার), ৩৭ প্যাকেট চিনি ও ৩৭ প্যাকেট ডাল উ’দ্ধা’র করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে গ্রে’প্তা’র ব্যবসায়ী শাহীন পু’লিশকে জানিয়েছেন- পণ্যগুলো জাহাঙ্গীর আলম ও রফিক নামে দুই ব্যক্তি তার কাছে প্রতি বোতল সয়াবিন তেল ৩০০ টাকা করে (প্রতি লিটার ১৫০ টাকা দরে), চিনি ৬০ টাকা কেজি এবং মসুর ডাল ৭০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করেছেন।

জাহাঙ্গীর ও রফিক স্থানীয় ৩৫ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল্লাহ আল মামুন মণ্ডলের ব্যক্তিগত সহকারী হিসেবে এলাকায় পরিচিত। আরও কয়েকজন ব্যবসায়ীর কাছেও এসব পণ্য বিক্রি করা হয়েছে বলেও স্বীকার করেন শাহিন।

তবে বরাদ্দের পণ্য বিক্রি করার কথা অস্বীকার করে কাউন্সিলর মামুন মণ্ডল জানান, এসব পণ্য অন্য এলাকা থেকে এনেও কেউ বিক্রি করে থাকতে পারে। আর জাহাঙ্গীর ও রফিক নামে তার কোনো ব্যক্তিগত সহকারী নেই। এই নামে কাউকে তিনি চেনেন না।

গাজীপুরের অ’তিরিক্ত জে’লা প্রশাসক (জেনারেল) আবুল কালাম জানান, রোববার থেকে নগরীতে ওয়ার্ড কাউন্সিলররদের মাধ্যমে কার্ডধারী নিম্নআয়ের লোকজনের মধ্যে কম’দামে টিসিবির পণ্য বিক্রি শুরু হয়েছে। বিক্রি সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার জন্য কাউন্সিলরকে সভাপতি করে সাত সদস্যের ট্যাগ কমিটি করা হয়েছে। কতজনকে পণ্য দেওয়া হয়েছে তাদের নাম-ঠিকানা যাচাই করে দেখা হবে। পণ্য কালোবাজারে বিক্রিতে জ’ড়ি’তরা কোনোভাবে রেহাই পাবে না।

এ ব্যাপারে গাছা থা’নার ওসি মো. ইসমাইল হোসেন জানান, ব্যবসায়ী শাহিনের গুদাম থেকে টিসিবির পণ্য উ’দ্ধা’র হয়েছে। এ ঘটনায় শাহিনকে গ্রে’প্তা’র করে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাত দিনের রি’মা’ন্ড চেয়ে সোমবার আ’দা’লতে পাঠানো হয়েছে। তিনি এসব পণ্য কিভাবে পেলেন রি’মা’ন্ডে এনে সে বিষয়ে জানতে চাওয়া হবে।

Back to top button