জাতীয়

ছাত্রলীগ নেতাকে ‘তুমি’ সম্মোধন করায় শিক্ষার্থীকে মা’রধরের অ’ভিযোগ

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত হল শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক ওয়াকিল আহমেদকে ‘তুমি’ সম্বোধন করায় প্রতিষ্ঠানটির মা’র্কেটিং বিভাগের শিক্ষার্থী আনিছুর রহমান বেধড়ক মা’রধরের শিকার হয়েছেন বলে অ’ভিযোগ পাওয়া গেছে।

সোমবার রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফট’কের সামনে এ ঘটনা ঘটে।মা’রধরের শিকার শিক্ষার্থী চোখে গুরুতর আ’ঘাত পেয়েছেন। বর্তমানে তিনি চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের ১২তম ব্যাচের প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের শিক্ষার্থী ও শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত হল শাখা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ওয়াকিল আহমেদ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফট’কের সামনে সেলিম মিয়ার দোকানে চা পান করতে যান। সেখানে তিনি ভুক্তভোগী আনিছকে পরিচয় জিজ্ঞেস করেন। পরিচয়ের একপর্যায়ে ছাত্রলীগ নেতাকে চিনতে না পেরে ‘তুমি’ সম্বোধন করেন আনিছুর। এ ঘটনায় ওয়াকিল ও তার বন্ধুরা দোকানের পেছনে নিয়ে ভুক্তভোগীকে বেধড়ক মা’রধর করেন। একপর্যায়ে ভুক্তভোগী কাকুতি-মিনতি করলে মা’রধরের মাত্রা আরো বাড়িয়ে চোখে আ’ঘাত করেন ছাত্রলীগ নেতা ওয়াকিল। ভুক্তভোগীর চি’ৎ’কার শুনে সহপাঠীরা এসে তাকে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতা’লে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজে রেফার্ড করেন।

ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী আনিছুর রহমান বলেন, ‘আমাকে ওয়াকিল ভাই পরিচয় জিজ্ঞেস করলে আমি আমা’র পরিচয় দেই। পরে মিরাজ নামের একজনের নাম জিজ্ঞেস করলে, আমি বলি মিরাজ কি তোমা’র বন্ধু। এতে আমা’র সাথে কথা কা’টাকাটি শুরু হয়। পরে আমাকে দোকানের পেছনে নিয়ে মা’রধর শুরু করেন তারা।’

অ’ভিযু’ক্ত ওয়াকিল আহমেদ বলেন, ‘ওই ছে’লে সিগারেট খেয়ে আমা’র মুখের ওপর ধোঁয়া ছেড়েছিল। আমি এর প্রতিবাদ করলে আমাকে ও আমা’র মা-বাবাকে গালি দেয়। এ সময় তার সাথে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে।’বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. কাজী মোহাম্ম’দ কা’মাল উদ্দীন বলেন, ‘বিষয়টি আমি জানতে পেরেই ভুক্তভোগীকে হাসপাতা’লে দেখতে এসেছি। আম’রা আগামীকাল প্রক্টরিয়াল টিম বসে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেব।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. এ এফ এম আবদুল মঈন বলেন, আমি প্রক্টরের সাথে কথা বলেছি। প্রক্টর রিপোর্ট দিলে ত’দ’ন্ত সা’পেক্ষে আম’রা ব্যবস্থা গ্রহণ করব।এ ঘটনায় অ’ভিযু’ক্ত ওয়াকিল আহমেদকে হল শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক পদ থেকে অব্যাহতি দিয়েছে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ।

 

Back to top button