জাতীয়

২০ রমজান পর্যন্ত স্কুলের পাঠদান চালু রাখার নির্দেশ

প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ২০ রমজান পর্যন্ত শ্রেণিকক্ষে পাঠদান কার্যক্রম চালু রাখার জন্য নির্দেশ দিয়েছে সরকার।প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মোহাম্ম’দ কা’মাল হোসেন স্বাক্ষরিত চিঠিতে মঙ্গলবার (২২ মা’র্চ) এই নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

চিঠিতে বলা হয়, প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের শিখন ঘাটতি পূরণকল্পে আগামী ২০ রমজান পর্যন্ত শ্রেণিকক্ষে পাঠদান কার্যক্রম চালু রাখার বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হলো।প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ও শি’শু কল্যাণ ট্রাস্টের পরিচালককে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

গত ১৯ মা’র্চ কুড়িগ্রামের এক অনুষ্ঠানে ২০ রমজান পর্যন্ত সব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় খোলা থাকবে বলে জানিয়েছিলেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন।প্রতিমন্ত্রী জানান, ক’রো’নার ক্ষতি পুষিয়ে নিতে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

তবে, এই সিদ্ধান্ত ঘোষণার পর পরই প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা ক্ষোভ জানিয়ে আসছেন।চলতি বছরের শুরুতে ক’রো’না ভাই’রাসের সংক্রমণ বাড়ে যাওয়ায় ২১ জানুয়ারি দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করে সরকার।সংক্রমণ কিছুটা কমে আসায় ২২ মা’র্চ মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা পর্যায়ের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হয়। সেদিন থেকে সীমিত সংখ্যক ক্লাস নেওয়া হচ্ছে।

তবে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সশরীর ক্লাস শুরু হয় গত ২ মা’র্চ। এছাড়া ১৫ মা’র্চ থেকে প্রাক-প্রাথমিকের শিক্ষার্থীদের সশরীরে ক্লাস শুরু হয়।অন্যদিকে, উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের ক্লাসও শুরু হয় গত ২ মা’র্চ। শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি ওইদিন ঢাকা কলেজে একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের ওরিয়েন্টশন কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন।

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে জানা যায়, ১৮ মাস শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের পর গত বছর ১২ সেপ্টেম্বর শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শ্রেণিকক্ষে পাঠদান শুরু হয়। প্রথমে প্রতিটি শ্রেণিতে প্রতিদিন দুইটি ক্লাস নেওয়া শুরু হয়। এরপর ক’রো’না সক্রমণ কমে গেলে প্রতিদিন একটি শ্রেণির চারটি ক্লাস নেওয়ার রুটিন প্রকাশ করে সরকার। আর মাধ্যমিকে গত বছরের নির্ধারিত সর্বশেষ সূচিতে প্রতিদিন প্রতিটি শ্রেণির শিক্ষার্থীদের চারটি ক্লাস ছিল।

Back to top button