জাতীয়

স্বাধীনতা দিবসে ফুল দিতে গিয়ে সং’ঘ’র্ষে জড়াল আ.লীগের দু’পক্ষ

স্বাধীনতা দিবসে মানিকগঞ্জের সাটুরিয়া উপজে’লায় শহীদ বেদিতে ফুল দেয়াকে কেন্দ্র করে বালিয়াটি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের মধ্যে সং’ঘ’র্ষ হয়েছে। আ’হত হয়েছেন কমপক্ষে ৫ জন।

প্রত্যক্ষদর্শী ও আওয়ামী লীগ সূত্রে জানা গেছে, সকালে বালিয়াটি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. রুহুল আমিনে নেতৃত্বে শহীদ বেদিতে ফুল দেয়া হয়। এরপরই বালিয়াটি ইউনিয়নে নির্বাচিত আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী চেয়ারম্যান ও বহিষ্কৃত সাধারণ সম্পাদক সোহেল চৌধুরীর নেতৃত্বে একটি অংশ ফুল দিতে গেলে দুই পক্ষের মধ্যে সং’ঘ’র্ষ বেঁধে যায়।

আ’হত ৫ জনের মধ্যে নাজমুল নামের একজনকে গুরুতর অবস্থায় সাটুরিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।
ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. রুহুল আমিন বলেন, সোহেল চৌধুরী আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কৃত। তিনি কীভাবে আওয়ামী লীগের ব্যানারে ফুল দিতে যান? বিষয়টি আ’প’ত্তি করায় সোহেল চৌধুরীর লোকজন আওয়ামী লীগের কর্মীদের ওপর হামালা চালান।

অ’পরদিকে, সোহেল চৌধুরী দাবি করেন, তার বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করা হয়েছে। চেয়ারম্যান এবং আওয়ামী লীগের নেতা হিসাবে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো তারও অধিকার আছে। তিনি পাল্টা অ’ভিযোগ করে বলেন, রুহুল আমিনের লোকজনই প্রথমে হা’ম’লা চালিয়েছে।সাটুরিয়া উপজে’লা আওয়ামী লীগের সভাপতি আফাজ উদ্দিন বলেন ঘটনাটি দুঃখজনক। যারা দোষি ত’দ’ন্ত করে তাদের বি’রু’দ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সাটুরিয়া থা’নার ভা’রপ্রাপ্ত কর্মক’র্তা আশরাফুল আলম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। লিখিত অ’ভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

Back to top button