জাতীয়

স্মৃ’তিস্তম্ভে ফুল দিয়ে ফেরার পথে আ. লীগ-বিএনপির সং’ঘ’র্ষ, আ’হত ১৫ আ’ট’ক ২

লক্ষ্মীপুরের রামগতিতে স্মৃ’তিস্তম্ভে ফুল দিয়ে ফেরার পথে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির নেতাকর্মীদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া ও সং’ঘ’র্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে উভ’য় পক্ষের অন্তত ১৫ নেতাকর্মী আ’হত হয়। এ ঘটনায় উপজে’লা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জামাল উদ্দিন ও উপজে’লা কমিটির যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক পৌরসভা’র কাউন্সিলর দিদার হোসেন খন্দকারকে আ’ট’ক করেছে পু’লিশ।

আজ শনিবার (২৬ মা’র্চ) দুপুরে রামগতি থা’না পু’লিশের ওসি বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।এর আগে সকাল ৮টার দিকে উপজে’লার আলেকজান্ডার বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

আ’হতরা হলেন বিএনপি নেতা জামাল উদ্দিন, দিদার হোসেন খন্দকার, উপজে’লা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক শাহ মোহাম্ম’দ রাকিব, উপজে’লা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন, রামগতি পৌর যুগ্ম আহ্বায়ক আরিফ হোসেন রাব্বি ও ছাত্রলীগের রাকিবুল ই’স’লা’ম সাব্বিরসহ ১৫ জন। আ’হতরা উপজে’লা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও স্থানীয় ক্লিনিকে চিকিৎসা নিয়েছেন।

আওয়ামী লীগ সূত্র জানায়, আ স ম আবদুর রব সরকারি কলেজ প্রাঙ্গণে স্মৃ’তিস্তম্ভে ফুল দিয়ে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা চলে আসেন। পরে তারা আলেকজান্ডার বাজারে উপজে’লা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে বসে ছিলেন। বিএনপি নেতাকর্মীরা ফুল দিয়ে ফেরার পথে লা’ঠিসোঁটা নিয়ে মিছিল করে। এ সময় মিছিল থেকে আওয়ামী লীগের বি’রু’দ্ধে উসকানিমূলক স্লোগান দেওয়া হয়। পরে স্লোগান ও লা’ঠিমিছিল বন্ধ করতে বললে তারা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের ওপর অ’তর্কিত হা’ম’লা চালায়। ইটপাট’কেল ছুড়ে আওয়ামী লীগের কার্যালয়ও ভাঙচুর করে।

বিএনপি সূত্র জানায়, ফুল দিয়ে ফেরার পথে ঘটনাস্থলে পৌঁছলে আওয়ামী লীগের লোকজন বিএনপি নেতাকর্মীদের ওপর হা’ম’লা করে। এ সময় উপজে’লা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জামাল উদ্দিনসহ তাদের নেতাকর্মীরা আ’হত হন। আওয়ামী লীগের লোকজন উপজে’লা বিএনপি কার্যালয়ও ভাঙচুর করেছে। পরে আ’হত অবস্থায় জামাল ও দিদারকে পু’লিশ আ’ট’ক করে নিয়ে যায়। আ’হত অন্যরা স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা নিয়েছেন।

উপজে’লা ছাত্রলীগের সভাপতি আকবর হোসেন সুখী বলেন, আমাদের ওপর বিএনপির হা’ম’লা ও লা’ঠিমিছিল পূর্বপরিক’ল্পি’ত। তাদের হা’ম’লায় আমাদের অন্তত ১০ নেতাকর্মী আ’হত হয়েছেন। তাদের বি’রু’দ্ধে পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি সাহেদ পারভেজ বাদী হয়ে মা’ম’লা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

জে’লা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট হাসিবুর রহমান হাসিব বলেন, কোনো কারণ ছাড়াই আওয়ামী লীগের লোকজন আমাদের নেতাকর্মীদের ওপর হা’ম’লা করেছে। পরে আ’হত দুই নেতাকে পু’লিশ আ’ট’ক করেছে। তাদের আ’ট’কের ঘটনার নিন্দা জানাই।

এ ব্যাপারে রামগতি থা’নার ভা’রপ্রাপ্ত কর্মক’র্তা (ওসি) আলমগীর হোসেন বলেন, মিছিল থেকে বিএনপি নেতাকর্মীরা উসকানিমূলক স্লোগান দেয়৷ এতে আওয়ামী লীগ-বিএনপির নেতাকর্মীরা মুখোমুখি অবস্থান নেয়। পু’লিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ঘটনাস্থল থেকে দুইজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আ’ট’ক করা হয়েছে।

Back to top button