জাতীয়

বাবা হ’ত্যায় মৃ’ত্যুদ’ণ্ডপ্রাপ্ত ছে’লে হা’ই’কো’র্টে খালাস

২০১৪ সালে বাগেরহাটের মোল্লাহাটের কোদালিয়া গ্রামে বাবাকে হ’ত্যার দায়ে বিচারিক আ’দা’লতে মৃ’ত্যুদ’ণ্ডাদেশপ্রাপ্ত ছে’লেকে খালাস দিয়েছেন হা’ই’কো’র্ট।

বুধবার (২৩ মা’র্চ) এ মা’ম’লার ডেথ রেফারেন্স, ফৌজদারি আপিল ও জে’ল আপিলের ওপর শুনানি শেষে বিচারপতি এ এস এম আব্দুল মোবিন এবং বিচারপতি এস এম মনিরুজ্জামানের অবকাশকালীন হা’ই’কো’র্ট বেঞ্চ ২৭ মা’র্চ (রোববার) রায় ঘোষণা করেন।

আ’দা’লতে আ’সা’মিপক্ষে ছিলেন আইনজীবী ফরহাদ আহমেদ ও শেখ ওয়াহিদুজ্জামান দিপু। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল সুজিত চ্যাটার্জী। পরে ফরহাদ আহমেদ জানান, ডেথ রেফারেন্স খারিজ ও আ’সা’মির আপিল মঞ্জুর করেছেন হা’ই’কো’র্ট। ফলে একমাত্র আ’সা’মি তুহিন কাজী খালাস পেয়েছেন।

পারিবারিক কলহের জের ধরে ২০১৪ সালের ৫ আগস্ট ভোর চারটায় তুহিন কাজী তার বাবা আবু সাঈদ কাজীকে ঘুমন্ত অবস্থায় ছু’রিকাঘাত করে হ’ত্যা করেন।

এ ঘটনায় আবু সাঈদের মে’য়ে সুমি আক্তার ভাই তুহিন কাজীকে আ’সা’মি করে মোল্লাহাট থা’নায় হ’ত্যা মা’ম’লা করেন। ত’দ’ন্ত শেষে ২০১৫ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি তুহিনের বি’রু’দ্ধে আ’দা’লতে অ’ভিযোগপত্র জমা দেন। পরে মা’ম’লার বিচার শেষে ২০১৬ সালের ৩০ আগস্ট বাগেরহাটের বিচারিক আ’দা’লত তুহিনকে মৃ’ত্যুদ’ণ্ড দেন।

পরে নিয়ম অনুযায়ী মৃ’ত্যুদ’ণ্ডাদেশ অনুমোদনের জন্য ডেথ রেফারেন্স হা’ই’কো’র্টে পাঠানো হয়। পাশাপাশি আ’সা’মি জে’ল আপিল ও ফৌজদারি আপিল করেন।

Back to top button