জাতীয়

হিজাব পরেই সেবা নিশ্চিতের দাবিতে ইবি শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

হিজাব-নিকাব পরিহিত অবস্থায় মহিলাদের সকল সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে সেবা নিশ্চিতের দাবিতে মানববন্ধন করেছেন ই’স’লা’মী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

সোমবার (২৮ মা’র্চ) বেলা ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রধান ফট’কের সামনে তারা এই মানববন্ধনের আয়োজন করেন।এসময় ‘হিজাব আমা’র স্বত্তার অংশ; পর্দা করা আমা’র সংবিধানিক অধিকার’ ‘কান দেখানো ছবি নয়; বায়োমেট্রিকেই সব হয়’ ‘কান দেখিতে চাহিয়া লজ্জা দিবেন না’ ‘বায়োমেট্রিক পদ্ধিতে জাতীয় পরিচয়পত্র কেন নয়?’ সহ বিভিন্ন স্লোগান সম্বলিত প্ল্যাকার্ড প্রদর্শন করেন।

মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা বলেন, ‘আম’রা মে’য়েরা পর্দা করার কারণে বিভিন্ন ক্ষেত্রে বাঁ’ধার সম্মুখীন হই। চাকুরির সাক্ষাৎকারে গেলে আমাদের পর্দা খুলে মুখ দেখাতে হয়। মুখ খুলে যখন কথা বলি তখন প্রচন্ড বিব্রতকর অবস্থায় পড়ি। কারণ এটা ধ’র্মীয় দৃষ্টিকোণ থেকে হারাম। চাকরি বা সরকারি সেবা নিতে যদি আমাদের ধ’র্মীয় বিধান লঙ্ঘন করতে হয় তাহলে আমাদের ধ’র্মীয় স্বাধীনতা কোথায়? আম’রা কি কোন বাজারের পণ্য যে, চেহারা দেখিয়ে আমাদের যোগ্যতার প্রমাণ করতে হবে?’

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সাইয়েদা হু’মায়রা বলেন, ‘যারা হিজাব-নিকাব পরিধান করে, তাদের জন্য বিকল্প বায়োমেট্রিক পদ্ধতি ব্যবহার করে সকল ক্ষেত্রে অংশগ্রহনের সুযোগ দেয়া হোক। হিজাব-নিকাব পরিহিত অবস্থায় জাতীয় পরিচয়পত্র ও ব্যাংক একাউন্টসহ রাষ্ট্রীয় সকল সুবিধা নিশ্চিত করা হোক।’

 

Back to top button