জাতীয়

ইশারাক গ্রে’প্তা’র, যা বললেন মির্জা ফখরুল

বিএনপি নেতা ইশরাক হোসেনের গ্রে’প্তা’রে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বে তার মুক্তির দাবি জানিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ই’স’লা’ম আলমগীর। তিনি বলেন, ইশরাক হোসেন একজন প্রতিবাদী বলিষ্ঠ তরুণ নেতা। তার সাহসী ভূমিকায় সরকার ভীত। তাই তিনি আওয়ামী প্রতিহিং’সা’পরায়ণ রাজনীতির শিকার হলেন। আজ বুধবার (৬ এপ্রিল) বিকেলে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে মির্জা ফখরুল এ সব কথা বলেন।

তিনি বলেন, নিত্যপণ্যের ঊর্ধ্বগতির প্রতিবাদে প্রচারপত্র বিলির মতো একটি জনসচেতনতামূলক কর্মসূচি থেকে বিএনপি নেতা প্রকৌশলী ইশরাক হোসেনকে গ্রে’প্তা’রে আবারও প্রমাণ হলো এই সরকার চরম জুলুমবাজ। জনগণের তীব্র ক্ষোভের মুখে তারা এখন নি’পীড়নের পথ বেছে নিয়েছে। দিন যতই যাচ্ছে ভোটারবিহীন সরকারের জিঘাংসার মাত্রা ততই ভ’য়াবহ রূপ ধারণ করছে।

মির্জা ফখরুল বলেন, চারিদিকে দুর্ভিক্ষের ন্যায় পরিস্থিতি বিরাজ করার কারণে সরকার জনগণকে দমনের জন্য হ’য়’রানি, জুলুম-নি’র্যা’তন, মিথ্যা মা’ম’লা, গ্রে’প্তা’র ইত্যাদিকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে। এরই ধারাবাহিকতায় প্রকৌশলী ইশরাক হোসেনকে গ্রে’প্তা’র করা হয়েছে। অ’বৈ’ধ ক্ষমতা হা’রা’নোর ভ’য়ে সরকার বিকারগ্রস্ত হয়ে পড়েছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, দেশের জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে এই সরকার ক্রুদ্ধ হয়ে উঠেছে। আর এই ভ’য়ংকর ক্রুদ্ধতার বিষাক্ত ছোবল গিয়ে পড়ছে বিরোধী নেতাকর্মীদের ওপর। সেজন্যই দেশে আইনের শাসনের বদলে আওয়ামী শাসনের এক বীভৎস বি’কৃ’ত রূপ ফুলে ফেঁপে উঠেছে। শাসকগোষ্ঠী দেশে এক শ্বা’সরুদ্ধকর অবস্থার সৃষ্টি করেছে।

 

 

Back to top button