জাতীয়

ব্যানারে নাম না থাকায় আ.লীগ নেতাকে গাছে বেঁধে মা’রধর!

পটিয়া উপজে’লার হাইদগাঁও ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের ইফতারের ব্যানারে নাম দেওয়াকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের দফায় দফায় সং’ঘ’র্ষ হয়েছে। একপর্যায়ে হাইদগাঁও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি জিতেন কান্তি গুহকে মা’রধর করে রাস্তায় পাশে গাছের সঙ্গে বেঁধে রাখা হয়।হাত পিছমোড়া করে বাঁ’ধা, পরনে জামা নেই, র’ক্তাক্ত জিতেন গুহের এ ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে।

শুক্রবার (২৯ এপ্রিল) বিকেলে হাইদগাঁও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ইফতার মাহফিলের ব্যানারে ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী ও দল থেকে বহিষ্কৃত হাইদগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বিএম জসিমের নাম না থাকাকে কেন্দ্র করে দুপুরে অনুষ্ঠানস্থলে গিয়ে চেয়ারম্যান গালিগালাজ করে ব্যানার টেনে ছিঁড়ে ফেলেন। একপর্যায়ে চেয়ারম্যান বিএম জসিমের লোকজন জিতেন কান্তি গুহকে মা’রধর করে টেনে কমিউনিটি সেন্টারের বাইরে এনে মে’রে র’ক্তাক্ত করে সড়কের পাশে গাছের সঙ্গে বেঁধে রাখেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, আ’হত আওয়ামী লীগ নেতা জিতেন কান্তি গুহকে লোকজন উ’দ্ধা’র করে প্রথমে পটিয়া উপজে’লা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতা’লে রেফার করা হয়েছে।

পটিয়া থা’নার ভা’রপ্রাপ্ত কর্মক’র্তা (ওসি) রেজাউল করিম মজুম’দার বাংলানিউজকে বলেন, ব্যানার নাম দেওয়াকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষ সং’ঘ’র্ষে জড়িয়েছে। আ’হত একজন চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এ ঘটনায় কাউকে আ’ট’ক করা হয়নি। থা’নায়ও মা’ম’লা হয়নি।

Back to top button