জাতীয়

সারা’বি’শ্বে মু’সলিম নি’র্যা’তনের কথা স্বীকার করলেন বাইডেন

ধ’র্মবিশ্বা’সের কারণে বিশ্বজুড়েই আ’ক্রা’ন্ত হতে হচ্ছে মু’সলিম’দের। বিদ্বেষ ও স’হিং’সতার শিকার হচ্ছেন তারা। এমনটাই বলেছেন মা’র্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। হোয়াইট হাউসে সোমবার (০২ মে) পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন ও মু’সলিম’দের শুভেচ্ছা জানাতে গিয়ে এ কথা বলেন তিনি।

মাসব্যাপী সিয়াম সাধনার পর সোমবার (০২ মে) বিশ্বজুড়ে শুরু হয় তিন দিনব্যাপী ঈদুল ফিতর উদযাপন। এদিন মধ্যপ্রাচ্য ও আরও বেশ কিছু দেশের সঙ্গে ঈদ উদযাপন করে যু’ক্তরাষ্ট্রও। ঈদুল ফিতর উদযাপনের অংশ হিসেবে এদিন হোয়াইট হাউসে এক আড়ম্বরপূর্ণ অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে স্থানীয় মু’সলিম’দের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন বাইডেন। এ সময় মু’সলিম’দের বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে কথা বলেন তিনি।

যু’ক্তরাষ্ট্রে প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক ধ’র্মীয় স্বাধীনতা বিষয়ক রাষ্ট্রদূত অ্যাম্বাসেডর-অ্যাট-লার্জ ফর ইন্টারন্যাশনাল রিলিজিয়াস ফ্রিডোম হিসেবে একজন মু’সলিমকে নিয়োগ দিয়েছে বাইডেন সরকার। সেই প্রসঙ্গেই বাইডেন বলেন, ‘এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কেননা আজকের বিশ্বে মু’সলিম’দের আম’রা অনেক সময়ই নিগৃহীত ও স’হিং’সতার শিকার হতে দেখছি। কাউকে তার ধ’র্মীয় বিশ্বা’সের কারণে বৈষম্য কিম্বা নিগ্রহের শিকার হওয়া উচিত নয়।’

পাশাপাশি বাইডেনের কথায় উঠে এসেছে সংখ্যালঘু উইঘুর ও রোহিঙ্গা মু’সলিম’দের দুরাবস্থার প্রসঙ্গও। তিনি বলেন, ‘আজকের এই পবিত্র দিনে আম’রা তাদের কথা স্ম’রণ করছি, যারা এই পবিত্র দিন উদযাপন করার সুযোগ পাচ্ছে না। বিশেষ করে উইঘুর ও রোহিঙ্গা মু’সলিম’রা। তারা দুর্ভিক্ষ, হিং’সা, সং’ঘ’র্ষ ও রোগের মুখোমুখি।’

সেই সঙ্গে যু’ক্তরাষ্ট্রের উচ্ছ্বসিত প্রশংসাও শোনা গেছে বাইডেনের মুখে। তর মতে, বিশ্বে যু’ক্তরাষ্ট্রই একমাত্র দেশ, যা কোনো ধ’র্ম, জাতি ও ভৌগোলিক অবস্থান নয়, শুধুমাত্র একটা আদর্শের ওপর ভিত্তি করে তৈরি হয়েছে। আর মু’সলিম’রা সেই দেশকে একটি শক্তিশালী ও নিখুঁত দেশে পরিণত করেছে।

এদিনের অনুষ্ঠানে ফার্স্ট লেডি জিল বাইডেন ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন পা’কিস্তানি গায়ক ও সুরকার আরুজ আফতাব, ওয়াশিংটনের মোহাম্ম’দ ম’স’জিদের ই’মাম ড. তালিব এম শরিফ। তবে এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন না ভাইস প্রেসিডেন্ট কা’মালা হ্যারিস। গত সপ্তাহে ক’রো’না আ’ক্রা’ন্ত হন তিনি।

হোয়াইট হাউসে ঈদ উদযাপন অনুষ্ঠান প্রবর্তন করেছিলেন সাবেক মা’র্কিন প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটন। তবে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রা’ম্পের আমলে এসে এটি বন্ধ হয়ে যায়। বাইডেন ক্ষমতায় আসার পর আবার ফিরে এসেছে।

এদিন ‘ঈদ মোবারক’ বলে হোয়াইট হাউসে মু’সলিম’দের স্বাগত জানান বাইডেন। বলেন, ‘হোয়াইট হাউসে আপনাদের স্বাগত জানাচ্ছি।’ অনুষ্ঠানের পর টুইটারে একটি পোস্টে বাইডেন বলেন, হোয়াইট হাউসে ঈদুল ফিতর উপলক্ষে অনুষ্ঠান উদযাপন করতে পেরে তিনি ও তার স্ত্রী’ সম্মানিত বোধ করছেন।

Back to top button