জাতীয়

আ.লীগ অফিসে ১৪৪ ধারা জারি

পটুয়াখালীর বাউফল উপজে’লা আওয়ামী লীগ কার্যালয় ‘জনতা ভবন’-এ ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে।শুক্রবার একই সময় একই স্থানে আওয়ামী লীগের দুগ্রুপ সংবাদ সম্মেলনের কর্মসূচি দেওয়ায় সংঘাত এড়াতে এই ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাতে উপজে’লা নির্বাহী কর্মক’র্তা মো. আল আমিন স্বাক্ষরিত এক আদেশে বলা হয়েছে— শুক্রবার সকাল ৮টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত জনতা ভবনের ৫০০ বর্গ গজের মধ্যে কোনো ব্যক্তির অনুপ্রবেশ, সমাবেশ, মিছিল, সভা’র আয়োজন, বাদ্যযন্ত্র বাজানো, প্রচারণা ও বি’স্ফো’রক দ্রব্য বহন ইত্যাদি কার্যক্রমের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, উপজে’লা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও জাতীয় সংসদের সাবেক চিফ হুইপ আসম ফিরোজ এমপির সঙ্গে উপজে’লা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বাউফল উপজে’লা পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুল মোতা’লেব হাওলাদারের বিরোধ চলছে।

তাদের উভ’য় গ্রুপ একাধিকবার পাল্টাপাল্টি কর্মসূচির আয়োজন করেছে। এ নিয়ে দলীয় নেতাকর্মীদের মধ্যে বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়।উপজে’লা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ফরিদ উদ্দিন বলেন, আবদুল মোতা’লেব হাওলাদার বিভিন্ন কর্মসূচিতে সংগঠন বিরোধী বক্তব্য দেওয়ার প্রতিবাদে জনতা ভবনে শুক্রবার সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করবে।

বৃহস্পতিবার স্থানীয় মিডিয়া কর্মীদের কাছে চিঠি পৌঁছে দেওয়ার কয়েক ঘণ্টা পরই আবদুল মোতা’লেব হাওলাদার একই স্থানে সংবাদ সম্মেলনের ঘোষণা দেন।আব্দুল মোতা’লেব হাওলাদার সাংবাদিকদের বলেন, বিভিন্নভাবে আমা’র ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করার চেষ্টা চলছে। তাই শুক্রবার সংবাদ সম্মেলনের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

এ বিষয়ে উপজে’লা নির্বাহী কর্মক’র্তা মো. আল আমিন বলেন, আম’রা সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছি, উভ’য়পক্ষের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করেছি। পৃথকভাবে সংবাদ সম্মেলনের পরাম’র্শ দিয়েছি। কিন্তু উভ’য়পক্ষ তাদের সিদ্ধান্তে অটল থাকায় ১৪৪ ধারা জারি করতে বাধ্য হয়েছি।

বাউফল থা’নার ভা’রপ্রাপ্ত কর্মক’র্তা আল মামুন বলেন, জনতা ভবনের আশপাশে আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণের জন্য পু’লিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

Back to top button