জাতীয়

সিটি নির্বাচন: ‘শুভেচ্ছা বিনিময়ে’ ব্যস্ত সম্ভাব্য প্রার্থীরা

কুমিল্লা সিটি করপোরেশন (কুসিক) নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশীদের বেশির ভাগ ঢাকায় ছুটছেন। কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখার পাশাপাশি দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃষ্টি আকর্ষণে ব্যস্ত থাকছেন। তবে ঈদুল ফিতরে মনোনয়নপ্রত্যাশী সবাই কুমিল্লায় ছিলেন। গত মঙ্গলবার নগরীর বিভিন্ন স্থানে ঈদের নামাজ আদায়ের পর তাঁরা ব্যস্ত হয়ে পড়েন নেতাকর্মী ও নগরবাসীর সঙ্গে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময়ে।

অনেকে নির্বাচনে তাঁদের অবস্থান জানান দিতে ঈদের দিন নগরীতে লিফলেটও বিতরণ করেন।
বিএনপির দলীয় সিদ্ধান্ত, বর্তমান সরকারের অধীনে তাঁরা নির্বাচন করবে না। তবে কুমিল্লা সিটির বর্তমান মেয়রসহ বিএনপিপন্থী তিনজন নেতা নাগরিক সমাজের ব্যানারে (স্বতন্ত্র) নির্বাচনে অংশ নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। তাঁরাও নগরীতে ঈদের নামাজ আদায়ের পাশাপাশি দলের নেতাকর্মী ও নগরবাসীর সঙ্গে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময়ে ব্যস্ত সময় পার করেছেন।

এদিকে কুসিক নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশীদের ফরম বিতরণ শুরু করেছে দলটি। দলের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া এক প্রেস বি’জ্ঞ’প্তিতে এ তথ্য জানান। এতে বলা হয়, নির্বাচন কমিশন ঘোষিত কুমিল্লা সিটি করপোরেশন, উপজে’লা পরিষদ, পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন পেতে আগ্রহী প্রার্থীদের ৫ মে (গতকাল বৃহস্পতিবার) থেকে ১১ মে (বুধবার) পর্যন্ত আবেদনপত্র সংগ্রহ ও জমা দেওয়ার তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। আওয়ামী লীগের ধানমণ্ডির রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে সকাল সাড়ে ১০টা থেকে বিকেল সাড়ে ৫টা পর্যন্ত দলীয় মনোনয়নপ্রত্যাশীদের আবেদনপত্র সংগ্রহ এবং জমা দিতে হবে।

কুসিকের মেয়র ও কুমিল্লা দক্ষিণ জে’লা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক মনিরুল হক সাক্কু কুমিল্লা কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠে ঈদের নামাজ আদায় করেন। এ সময় তাঁর অনুসারীরাও সেখানে ছিলেন। ঈদের নামাজের পর মেয়র সাক্কু দলের নেতাকর্মী ও নগরীর বাসিন্দাদের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। তিনি এবং তাঁর অনুসারীরা এরই মধ্যে ভোটারদের কাছে যেতে শুরু করেছেন।

নগরীজুড়ে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী হিসেবে আলোচনায় থাকা সংরক্ষিত না’রী আসনের সংসদ সদস্য আঞ্জুম সুলতানা সীমা ঈদের সময় নগরবাসীর সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আরফানুল হক রিফাত ঈদের নামাজ আদায় করেন কুমিল্লা কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠে। তিনিও দলের নেতাকর্মী ও নগরীর বিভিন্ন এলাকার মানুষের সঙ্গে ঈদ শুভেচ্ছায় ব্যস্ত সময় কা’টান।

মহানগর আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়াবিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আনিসুর রহমান মিঠু নগরীর টমছম ব্রিজ কবরস্থানের পাশের ঈদগাহে নামাজ আদায় করেন। পরে তিনি নগরীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দলের নেতাকর্মী ও নগরবাসীর সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।

নৌকার আরেক মনোনয়নপ্রত্যাশী মহানগর আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণবিষয়ক সম্পাদক নূর-উর রহমান মাহমুদ তানিম নিজ এলাকা মুন্সেফবাড়িতে ঈদের নামাজ আদায় করেন। পরে তিনি দলের নেতাকর্মী ও নগরবাসীর সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।কুমিল্লা দক্ষিণ জে’লা বিএনপির সদস্য কাউসার জামান বাপ্পি নিজ এলাকা নগরীর রানীর বাজার জামে ম’স’জিদে ঈদের নামাজ আদায় করেন। ঈদের নামাজের পর তিনি দলের নেতাকর্মী ও নগরবাসীর সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।

কুমিল্লা মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি নিজাম উদ্দিন কায়সার কুমিল্লা কেন্দ্রীয় ঈদগাহে নামাজ আদায় করে দলের নেতাকর্মী ও নগরবাসীর সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।

Back to top button