জাতীয়

বিনা টিকিটে ট্রেনে ভ্রমণ, সেই টিটিইকে তলব

বিনা টিকিটে ট্রেনে ভ্রমণ ইস্যুতে সাময়িক বরখাস্ত সেই টিটিই শফিকুল ই’স’লা’মকে ব্যাখ্যা দিতে তলব করা হয়েছে। রোববার পাকশীর বিভাগীয় বাণিজ্যিক কর্মক’র্তার (ডিসিও) কার্যালয়ে তাকে ডেকে পাঠানো হয়েছে। এ ছাড়া এ ঘটনা ত’দ’ন্তে পাকশীর সরকারি পরিবহণ কর্মক’র্তাকে আহ্বায়ক করে তিন সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে।

পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের বিভাগীয় বাণিজ্যিক কর্মক’র্তা নাসির উদ্দিন টিটিইকে বরখাস্তের কারণ হিসেবে এক যাত্রীর হাতে লেখা একটি অ’ভিযোগপত্রের কথা জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ৫ মে ঘটনার দিন ইম’রুল কায়েস নামে এক যাত্রী অ’ভিযোগটি দিয়েছেন। এরপর টিটিই শফিকুল ই’স’লা’মকে ওই দিনই বরখাস্ত করা হয়।

ডিসিও নাসির উদ্দিন আরও বলেন, টিটিই শফিকুল ই’স’লা’ম হীনম্মন্যতায় ভোগেন। তিনি এর আগেও যাত্রীদের সঙ্গে অশোভন আচরণ করেছেন। ফলে যাত্রীর লিখিত অ’ভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে তাকে।

অ’ভিযোগপত্রে ওই যাত্রী দাবি করেন, তিনি ৫ মে দিবাগত রাত ২টা ১৫ মিনিটে কাউন্টারে টিকিট না পেয়ে ট্রেনে ওঠেন। এরপর টিটিই এসে তাদের কাছে টিকিট চান। তিনি টিকিট পাননি বলে জানান। পরে তিনি টিকিট দিতে বললে টিটিই তিনজনের ভাড়া বাবদ ১ হাজার ৫০০ টাকা দাবি করেন। ৩০০ টাকার টিকিট ৫০০ কেন জানতে চাইলে তিনি ৩ হাজার ৬০০ টাকা দিয়ে টিকিট নিতে হবে জানান। এত টাকা দেওয়া সম্ভব না বলাতে টিটিই খেপে যান। তিনি বকাবকি করেন। ওই যাত্রীর দাবি, টিটিই মা’দ’কাসক্ত ছিলেন। তিনি তার শা’স্তি দাবি করেন।

তবে টিটিই শফিকুল ই’স’লা’ম দাবি করেন, তিনি কারও সঙ্গে অশোভন আচরণ করেননি। শুধু তিনি তার দায়িত্ব পালন করেছেন।তিনি বলেন, আমাকে ব্যাখ্যার জন্য ডা’কা হয়েছে। ব্যাখ্যা দিতে আমি প্রস্তুত। সেদিন যা যা ঘটেছে, আমি সেটাই বলব। স্যারেরা যা ব্যবস্থা নেওয়ার নেবেন।

উল্লেখ্য, ৫ মে রাতে খুলনা থেকে ঢাকাগামী সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনে ঈশ্বরদী রেলওয়ে জংশন স্টেশন থেকে বিনা টিকিটে তিন যাত্রী ঢাকায় যাচ্ছিলেন। তারা ট্রেনের এসি কা’ম’রায় বসেছিলেন। তাদের কাছে ভাড়া চাইলে টিটির সঙ্গে কথা কা’টাকাটি হয়। পরে ওই তিন যাত্রী নিজেদের রেলমন্ত্রীর আত্মীয় পরিচয় দেন। টিটিই শফিকুল ই’স’লা’ম তাদের কাছ থেকে ১ হাজার ৫০ টাকা ভাড়া নিয়ে এসি কা’ম’রা থেকে শোভন কা’ম’রায় পাঠান। ওই তিন যাত্রী শোভন কা’ম’রাতেই ঢাকা পৌঁছান। এর কিছুক্ষণের মধ্যে মোবাইলফোনে টিটিই শফিকুল ই’স’লা’মকে সাময়িক বরখাস্তের বিষয়টি জানানো হয়।

Back to top button