জাতীয়

দোকান খালি, মালিকের বাড়িতে ২৩২৮ লিটার সয়াবিন তেল!

সারা দেশে ভোজ্যতেলের জন্য হাহাকার চলছে। শহরে পাওয়া গেলেও উপজে’লা পর্যায়ে ও গ্রামাঞ্চলে খুচরা দোকানে পাওয়া যাচ্ছে না সয়াবিন তেল। অনেক ব্যবসায়ী ভোজ্যতেল বিক্রি বন্ধ রেখে মজুদ করে রেখেছেন।

অনেক দোকানে তেল পাওয়া না গেলেও মালিকের বাড়িতে তেলের মজুদ পাওয়া যায়। চট্টগ্রামের ফটিকছড়িতে আকতার হোসেন নামে এক ব্যবসায়ীর বাড়ি থেকে ২ হাজার ৩২৮ লিটার সয়াবিন তেল উ’দ্ধা’র করেছে স্থানীয় প্রশাসন।

জানা গেছে, গো’প’ন সংবাদের ভিত্তিতে শনিবার রাত ১১টার দিকে ফটিকছড়ি উপজে’লার বাগানবাজারের দক্ষিণ গজারিয়া গ্রামের ব্যবসায়ী আকতারের বাড়িতে অ’ভিযান চালান সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এসএম আলমগীর।

তিনি বলেন, অ’ভিযান চালিয়ে আকতার হোসেন নামে এক ব্যবসায়ীর বাড়ির একটি কক্ষ থেকে ২ হাজার ৩২৮ লিটার সয়াবিন তেল উ’দ্ধা’র করা হয়।

অ’বৈ’ধভাবে পণ্য মজুতের অ’ভিযোগে অ’ত্যাবশ্যকীয় পণ্য নিয়ন্ত্রণ আইন-১৯৫৬ এর বিভিন্ন ধারায় ওই ব্যবসায়ীকে ৪০ হাজার টাকা জ’রিমানা করা হয়েছে।

বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন ফটিকছড়ি উপজে’লা নির্বাহী অফিসার সাব্বির আহম’দ সানি।খুচরা পর্যায়ের ব্যবসায়ীরা বলছেন, তেলের দাম বাড়বে এমন তথ্যের ভিত্তিতে কিছু অসাধু খুচরা ব্যবসায়ী আগে থেকে মজুদ করেছেন। তখন কম দামে কিনলেও এখন ক্রেতাদের জি’ম্মি করে বেশি দামে বিক্রি করছেন। ঈদের আগ থেকেই দাম বাড়ানোর জন্য মিল থেকে তেল সরবরাহ করা হচ্ছে না। ঈদের পর তা মা’রাত্মক আকার ধারণ করে। এখন বাজারে তেল নেই।

Back to top button