জাতীয়

বুস্টার ডোজের আওতায় দেশের এক কোটি ৩০ লাখ মানুষ

দেশে মহামা’রি ক’রো’নাভাই’রাসের সংক্রমণ রোধে এখন পর্যন্ত বুস্টার ডোজ দেওয়া হয়েছে এক কোটি ৩০ লাখ ১০ হাজার ৮৫ জনকে।

রোববার (৮ মে) স্বাস্থ্য অধিদফতরের ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশন শাখার (এমআ’ই’এ’স) পরিচালক ও লাইন ডিরেক্টর অধ্যাপক ডা. মিজানুর রহমান স্বাক্ষরিত ক’রো’নার টিকাদানবিষয়ক সংবাদ বি’জ্ঞ’প্তি থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

এছাড়া টিকার প্রথম ডোজ নিয়েছেন ১২ কোটি ৮৫ লাখ ৯৪ হাজার ২৮৫ জন। আর দুই ডোজ টিকার আওতায় এসেছেন ১১ কোটি ৬৫ লাখ ৫৬ হাজার ৪৬২ জন মানুষ।

বি’জ্ঞ’প্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় (রোববার) সারাদেশে প্রথম ডোজ টিকা দেওয়া হয়েছে ৭ হাজার ৭৯৬ জনকে, দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হয়েছে ৪৯ হাজার ৮০৩ জনকে। এছাড়াও এ সময়ে বুস্টার ডোজ দেওয়া হয়েছে ৮৯ হাজার ১০ জনকে। তাদেরকে দেওয়া হয়েছে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা, সিনোফার্ম, ফাইজার, ম’র্ডানা এবং জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকা।

গত ১ নভেম্বর থেকে বাংলাদেশে ১২-১৭ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের টিকাদান কার্যক্রম শুরু হয়। তাদের মধ্যে এখন পর্যন্ত এক কোটি ৭৩ লাখ ২০ হাজার ৯৪২ জনকে প্রথম ডোজ টিকা দেওয়া হয়েছে। দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হয়েছে এক কোটি ৫৮ লাখ ৯৮ হাজার ৪৮৩ জনকে।

অধিদফতর জানিয়েছে, দেশে এ পর্যন্ত ২১ লাখ ৭ হাজার ১৬০ জন ভাসমান জনগোষ্ঠী টিকার আওতায় এসেছেন। তাদের জনসন অ্যান্ড জনসনের সিঙ্গেল ডোজ টিকা দেওয়া হয়েছে।

গত বছরের ২৭ জানুয়ারি রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতা’লে দেশের টিকা কার্যক্রম উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গণভবন থেকে ভা’র্চুয়ালি যু’ক্ত হয়ে টিকাদান কার্যক্রম উদ্বোধন করেন তিনি। এরপর ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে গণটিকা কার্যক্রম শুরু হয়।

Back to top button