জাতীয়

সাবেক প্রতিমন্ত্রী টুকুর বি’রু’দ্ধে হা’ম’লার অ’ভিযোগ

সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শামসুল হক টুকুর বি’রু’দ্ধে ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠানে হা’ম’লার অ’ভিযোগ করেছেন গণফোরামের (একাংশ) নির্বাহী সভাপতি অধ্যাপক আবু সাইয়িদ। তিনি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় স’ম্প’র্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতির পদ থেকে টুকুর অ’পসারণও চান।

টুকু ও তাঁর ছে’লে পাবনার বেড়ার পৌর মেয়র আসিফ সামস রঞ্জনের বি’রু’দ্ধে ধ’র্মীয় অনুষ্ঠানে ‘স’ন্ত্রা’সী’ হা’ম’লার অ’ভিযোগ এনে এ দাবি জানান আবু সাইয়িদ।সোমবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে ‘পাবনা জে’লার বেড়া পৌরসভা এলাকায় সন্ত্রাস, খু’ন, দু’র্নী’তি, চাঁদাবাজি, মা’দ’ক কারবার, জবরদখল ও দুর্বৃত্তায়নবিরোধী প্রতিরোধ প্রতিকারার্থ’ শীর্ষক এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

জবরদখল ও দুর্বৃত্তায়নবিরোধী প্রতিরোধ কমিটি, বেড়া, পাবনা এর আয়োজক।আবু সাইয়িদ বলেন, শবেকদরের দিন বেড়ার স্থানীয় কবরস্থানসংলগ্ন ঈদগাহে ইফতার ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হলেও তাতে বাধা পেয়ে বাতিল করেন। পরে তাঁর নিজ বাসভবনে দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হলেও পু’লিশের সহায়তায় টুকু ও তাঁর ছে’লে স’ন্ত্রা’সীদের লেলিয়ে দিয়ে হা’ম’লা, ভাঙচুর চালিয়ে মাহফিল পণ্ড করে দেন।

সাবেক তথ্য প্রতিমন্ত্রী বলেন, ইফতার মাহফিলে টুকুসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিদের আমন্ত্রণ করা হয়। অনুষ্ঠানে যখন লোকজন আসছিল তখন টুকুর ছে’লে দলবল নিয়ে জনগণকে বাধা দেন, মা’রধর করেন। যারা এসেছিল তারা হা’ম’লার শিকার হয়েছে। না’রীদের ওপর অ’ত্যাচার করা হয়েছে। হা’ম’লার শিকার হয়ে থা’নায় গিয়েও মা’ম’লা করতে পারেনি কেউ। পরে আ’দা’লতে মা’ম’লা করা হয়।

এ সময় না’রীদের ওপর নি’র্যা’তনের একটি ভিডিও চিত্রও তুলে ধরেন তিনি। আ’হত ব্যক্তিরা মোবাইল ফোনে তাঁদের অবস্থার বর্ণনা দেন।ঘটনার জন্য শামসুল হক টুকুকে দায়ী করে আবু সাইয়িদ বলেন, একজন সংসদ সদস্য হয়ে তিনি (টুকু) সংবিধান লঙ্ঘন করেছেন। ধ’র্মীয় অনুভূতিতে আ’ঘাত হানা হয়েছে। সংবিধান লঙ্ঘন, শপথ ভঙ্গ ও ধ’র্মীয় অনুভূতিতে আ’ঘাত হানার জন্য সরকার তাঁকে দৃষ্টান্তমূলক শা’স্তি দেবে বলে আশা করেন তিনি।

প্রশ্নের জবাবে আবু সাইয়িদ বলেন বলেন, এলাকায় আধিপত্য বিস্তারের জন্য শামসুল হক টুকু পেশাদার খু’নি, স’ন্ত্রা’সী, চাঁদাবাজ, ভূমি দখলদারদের আশ্রয়-প্রশ্রয় দিয়ে থাকেন। পাবনার বেড়ার কুলঘাট থেকে মাসে ২২ লাখ টাকা চাঁদা তোলা হয়। বিচার বিভাগীয় ত’দ’ন্তে সত্যতা বেরিয়ে আসবে।

সংবাদ সম্মেলনে মানবতাবিরোধী অ’প’রা’ধে মতিউর রহমান নিজামীর মা’ম’লার সাক্ষী বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. আব্দুস সেলিম বলেন, স’ন্ত্রা’সী হা’ম’লা থেকে তিনিও রেহাই পাননি। তিনি এখন নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। স’ন্ত্রা’সীদের প্রশ্রয়দাতা হিসেবে শামসুল হক টুকুসহ এ ঘটনায় সম্পৃক্তদের শা’স্তি দিতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কা’মনা করেন তিনি।সংবাদ সম্মেলনে প্রতিরোধ কমিটির আহ্বায়ক বীর মুক্তিযু’দ্ধা মো. আব্দুস সেলিম লতিফ, টুকুর ভাই আব্দুল বাতেলসহ কমিটির অন্য নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

অ’ভিযোগ প্রসঙ্গে টুকুর ছে’লে পৌর মেয়র আসিফ সামস রঞ্জন কালের কণ্ঠকে বলেন, ওয়ান-ইলেভেনের কুশীলব ও যাঁরা বিগত দিনে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করেছেন তাঁরা এবং আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কৃত নেতারা সরকারের উন্নয়নকে বাধাগ্রস্ত করতে চান। আইন-শৃঙ্খলার অবনতি ঘটাতে সাম্প্রতিক সম্প্রীতি নষ্ট করতে চাইছেন।

Back to top button