জাতীয়

গ্যাট’কো দু’র্নী’তি: খালেদার বি’রু’দ্ধে অ’ভিযোগ গঠন শুনানি ৫ জুন

গ্যাট’কো দু’র্নী’তির অ’ভিযোগে দায়ের করা মা’ম’লায় বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার বি’রু’দ্ধে অ’ভিযোগ গঠন শুনানি পিছিয়ে আগামী ৫ জুন দিন ধার্য করেছেন আ’দা’লত।
মঙ্গলবার ঢাকার বিশেষ জজ আ’দা’লত-৩ এর বিচারক আলী হোসাইনের আ’দা’লত নতুন এ দিন ধার্য করেন।

এদিন মা’ম’লার অ’ভিযোগ গঠন শুনানির জন্য ধার্য ছিল। কিন্তু মা’ম’লার প্রধান আ’সা’মি খালেদা জিয়া অ’সুস্থ থাকায় আ’দা’লতে হাজির হতে পারেননি। পরে খালেদা জিয়ার পক্ষে তার আইনজীবী অ’ভিযোগ গঠন শুনানি পেছানোর আবেদন করেন। আ’দা’লত আবেদন মঞ্জুর করে অ’ভিযোগ গঠনের শুনানির জন্য এ দিন ধার্য করেন।

২০০৭ সালের ২ সেপ্টেম্বর রাজধানীর তেজগাঁও থা’নায় খালেদা জিয়াসহ ১৩ জনের বি’রু’দ্ধে গ্যাট’কো দু’র্নী’তি মা’ম’লা’টি দায়ের করেন দুদকের উপ-পরিচালক গো’লাম শাহরিয়ার চৌধুরী। ২০০৮ সালের ১৩ মে ত’দ’ন্ত শেষে দুদকের উপ-পরিচালক জহিরুল হুদা খালেদা জিয়াসহ ২৪ জনের বি’রু’দ্ধে আ’দা’লতে অ’ভিযোগপত্র দাখিল করেন।

মা’ম’লার অ’ভিযোগপত্রে বলা হয়, আ’সা’মিরা পরস্পর যোগসাজশে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান গ্যাট’কোকে ঢাকার কমলাপুর আইসিডি ও চট্টগ্রাম বন্দরের কনটেইনার হ্যান্ডলিংয়ের কাজ পাইয়ে দিয়ে রাষ্ট্রের ১৪ কোটি ৫৬ লাখ ৩৭ হাজার ৬১৬ টাকার ক্ষতি করেছেন।

এ মা’ম’লার অন্য আ’সা’মিরা হলেন- সাবেক মন্ত্রী এম সাইফুর রহমান, আব্দুল মান্নান ভূইয়া, এমকে আনোয়ার, জামায়াতে ই’স’লা’মীর সাবেক আমির মা’ওলানা মতিউর রহমান নিজামী, চট্টগ্রাম বন্দরের প্রধান অর্থ ও হিসাবরক্ষণ কর্মক’র্তা আহমেদ আবুল কাশেম, বিএনপি চেয়ারপার্সনের ছোট ছে’লে আরাফাত রহমান কোকো, বিএনপি দলীয় সাবেক মন্ত্রী এম শামছুল ই’স’লা’ম, সাবেক জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী একেএম মোশাররফ হোসেন, সাবেক মন্ত্রী ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের (চবক) সাবেক চেয়ারম্যান কমোডর জুলফিকার আলী, প্রয়াত মন্ত্রী আকবর হোসেনের স্ত্রী’ জাহানারা আকবর, দুই ছে’লে ইসমাইল হোসেন সায়মন এবং একেএম মু’সা কাজল, এহসান ইউসুফ, সাবেক নৌ সচিব জুলফিকার হায়দার চৌধুরী, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের (চবক) সাবেক সদস্য একে রশিদ উদ্দিন আহমেদ, গ্লোবাল এগ্রোট্রেড প্রাইভেট লিমিটেডের (গ্যাট’কো) পরিচালক শাহ’জাহান এম হাসিব, গ্যাট’কোর পরিচালক সৈয়দ তানভির আহমেদ ও সৈয়দ গালিব আহমেদ, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের সাবেক চেয়ারম্যান এএসএম শাহাদত হোসেন, বন্দরের সাবেক পরিচালক (পরিবহন) এএম সানোয়ার হোসেন ও বন্দরের সাবেক সদস্য লুৎফুল কবীর।

Back to top button