জাতীয়

স্বাস্থ্যের গাড়িচালক মালেক দম্পতির বিচার শুরু

অ’বৈ’ধ সম্পদ অর্জনের অ’ভিযোগে দু’র্নী’তি দমন কমিশনের (দুদক) মা’ম’লায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের গাড়িচালক মো. আব্দুল মালেক ও তার স্ত্রী’ নার্গিস বেগমের বিচার শুরুর আদেশ দিয়েছেন আ’দা’লত।

বুধবার (১১ মে) ঢাকার স্পেশাল জজ আ’দা’লত-৬ এর বিচারক আল আসাদ মো. আসিফুজ্জামান পৃথক দুই মা’ম’লায় তাদের বি’রু’দ্ধে অ’ভিযোগ গঠনের মাধ্যমে বিচার শুরুর আদেশ দেন।

একই সঙ্গে এই মা’ম’লার সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য আগামী ৭ জুন দিন ধার্য করেন আ’দা’লত।
দুটি মা’ম’লায়ই মালেক আ’সা’মি এবং একটিতে তার সঙ্গে স্ত্রী’ নার্গিসকেও আ’সা’মি করা হয়। গত ১৮ এপ্রিল দুই আ’সা’মির পক্ষে অব্যাহতির আবেদনের শুনানি করেন তাদের আইনজীবী শাহিনুর ই’স’লা’ম। দুদকের পক্ষ থেকে আ’সা’মিদের বি’রু’দ্ধে অ’ভিযোগ গঠনের আর্জি জানানো হয়। শুনানি শেষে এ বিষয়ে আদেশের জন্য ১১ মে দিন ধার্য করেন আ’দা’লত। সে অনুযায়ী বিচারক আজ অব্যাহতির আবেদন খারিজ করে আ’সা’মিরা দোষী না নি’র্দোষ জানতে চান। এ সময় আ’সা’মিরা নিজেদের নি’র্দোষ দাবি করে ন্যায়বিচার চান। এরপর আ’দা’লত তাদের বি’রু’দ্ধে অ’ভিযোগ গঠনের আদেশ দেন।

এদিন আ’সা’মিপক্ষে জামিনের আবেদন করা হয়। জামিন বিষয়ে শুনানির জন্য আগামী ১৯ মে দিন ধার্য করেন আ’দা’লত। আ’সা’মিপক্ষের আইনজীবী শাহিনুর ই’স’লা’ম ই’স’লা’ম বাংলানিউজকে এই তথ্য জানান।২০২১ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি দুদকের সহকারী পরিচালক সৈয়দ নজরুল ই’স’লা’ম বাদী হয়ে আব্দুল মালেক ও তার স্ত্রী’র বি’রু’দ্ধে কমিশনের সমন্বিত জে’লা কার্যালয় ঢাকা-১ দুটি মা’ম’লা করেন।

প্রথম মা’ম’লার এজাহারে বলা হয়, আ’সা’মি আবদুল মালেক স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের চাকরিকালে অনিয়ম, দু’র্নী’তির মাধ্যমে মোট এক কোটি ৫০ লাখ ৩১ হাজার ৮১০ টাকার স্থাবর-অস্থাবর অ’বৈ’ধ সম্পদ অর্জন করেছেন। তার বি’রু’দ্ধে দুদকে দাখিলকৃত সম্পদ বিবরণীতে ৯৩ লাখ ৫৩ হাজার ৬৪৮ টাকার সম্পদ অর্জনের তথ্য গো’প’ন করে মিথ্যা বা ভিত্তিহীন ঘোষণা দিয়েছেন। তিনি অ’বৈ’ধ সম্পদ অর্জন করে ও তা ভোগদখলে রেখে দুদক আইন-২০০৪ এর ২৬(২) ও ২৭(১) ধারায় শা’স্তিযোগ্য অ’প’রা’ধ করেছেন।

অ’পর মা’ম’লায় মা’ম’লায় আবদুল মালেকসহ তার স্ত্রী’ নার্গিস বেগমকে আ’সা’মি করা হয়েছে। তাদের বি’রু’দ্ধে জ্ঞাত আয়ের উৎসের সঙ্গে অসঙ্গতিপূর্ণ এক কোটি ১০ লাখ ৯২ হাজার ৫০ টাকা মূল্যের স্থাবর-অস্থাবর সম্পদ অর্জনের অ’ভিযোগ রয়েছে। এ পরিমাণ সম্পদ আ’সা’মি নার্গিস বেগমের ভোগদখলে রাখার ক্ষেত্রে স্বামী আবদুল মালেক প্রত্যক্ষভাবে সহায়তা করেছেন। তাদের বি’রু’দ্ধে দুদক আইন-২০০৪ এর ২৭(১) ধারা ও দ’ণ্ডবিধি ১০৯ ধারায় মা’ম’লা’টি করা হয়।

২০২১ সালের ২৭ অক্টোবর দুদকের সহকারী পরিচালক সৈয়দ নজরুল ই’স’লা’ম তাদের বি’রু’দ্ধে চার্জশিট দাখিল করেন।গত বছর ২৩ সেপ্টেম্বর এই মা’ম’লায় নার্গিস আক্তার আ’দা’লতে আত্মসম’র্পণ করে জামিনের আবেদন করেন। সেই আবেদন নামঞ্জুর করে আ’দা’লত তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

২০২০ সালের ২০ সেপ্টেম্বর ভোরে রাজধানীর তুরাগ এলাকায় গাড়িচালক আব্দুল মালেককে গ্রে’প্তা’র করে রে’ব-১। এ সময় তার কাছ থেকে একটি বিদেশি পি’স্ত’ল, একটি ম্যাগাজিন, পাঁচ রাউন্ড গু’লি, দেড় লাখ টাকার বাংলাদেশি জাল নোট, একটি ল্যাপটপ ও মোবাইল ফোন জ’ব্দ করা হয়।

এরপর তার বি’রু’দ্ধে অ’স্ত্র আইনে মা’ম’লা হয়। গত বছর ২০ সেপ্টেম্বর অ’স্ত্র আইনের মা’ম’লায় মালেককে ৩০ বছরের কারাদ’ণ্ড দেন আ’দা’লত।

Back to top button