জাতীয়

গুদামে মিলল ১ লাখ ২৭ হাজার লিটার সয়াবিন

পাবনা শহরসহ বিভিন্ন স্থানে পাঁচ ব্যবসায়ীর গুদামে লুকিয়ে রাখা এক লাখ ২৭ হাজার লিটার সয়াবিন তেল উ’দ্ধা’র করা হয়েছে।

এ সময় সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীদের সাড়ে ৫ লাখ টাকা জ’রিমানা করা হয়। জে’লা গোয়েন্দা পু’লিশ এবং জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর মঙ্গল ও বুধবার এসব অ’ভিযান পরিচালনা করে। জে’লা গোয়েন্দা পু’লিশের ভা’রপ্রাপ্ত কর্মক’র্তা জানান, জে’লা গোয়েন্দা পু’লিশের একটি দল বুধবার রাত ৯টার দিকে পাবনা শহরের দিলালপুর উত্তম কুমা’র কুন্ডর গুদামে অ’ভিযান চালায়। এ সময় তার গুদামে লুকিয়ে রাখা ৪৬ হাজার ৪০০ লিটার সয়াবিন তেল উ’দ্ধা’র করা হয়। ব্যবসায়ী উত্তম কুমা’র কুন্ড তার গোডাউনে ওই সয়াবিন তেলগুলো বাজারে না ছেড়ে বেশি মুনাফার অসৎ উদ্দেশ্যে মজুদ করেছিল।

অ’ভিযানে নেতৃত্ব দেওয়া নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আবুল হাসনাত গুদাম মালিক উত্তম কুমা’র কুন্ডকে এক লাখ ৫০ হাজার টাকা জ’রিমানা, অনাদায়ে তিন মাসের কারাদ’ণ্ড দেন। পরে জ’ব্দ করা ভোজ্যতেল দুদিনের মধ্যে সরকার নির্ধারিত মূল্যে বিক্রয় করার নির্দেশ দেওয়া হয়।

একই দিন জে’লা গোয়েন্দা পু’লিশের একটি দল জে’লার বেড়া উপজে’লার বাণিজ্যকেন্দ্র কাশিনাথপুর এলাকায় ব্যাংক সুনীলের গুদামে অ’ভিযান চালিয়ে ৩০ হাজার লিটার সয়াবিন তেল জ’ব্দ করা করে। এ সময় বাবুল ও খোকন নামে দুজনকে আ’ট’ক করা হয়। পরে বেড়া উপজে’লা নির্বাহী অফিসার এবং নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সবুর আলী ভ্রাম্যমাণ আ’দা’লতের মাধ্যমে বাবুল মিয়াকে এক লাখ ৫০ হাজার টাকা এবং খোকন আলীকে দুই লাখ টাকা জ’রিমানা করেন। এ ছাড়া জ’ব্দকৃত সয়াবিন তেল দুদিনের মধ্যে স্থানীয় প্রশাসনের তত্ত্বাবধানে বিক্রির নির্দেশ দেন।

একই সময়ে কাশিনাথপুর মীর স্টোরের গুদামে অ’ভিযান পরিচালনা করে আরও ৩০ হাজার লিটার সয়াবিন তেল জ’ব্দ করা হয়। পরে সাঁথিয়া উপজে’লার সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. কা’ম’রুজ্জামান গুদাম মালিক আবুল খায়েরকে ৭০ হাজার টাকা জ’রিমানা করেন এবং জ’ব্দ সয়াবিন তেল তিন দিনের মধ্যে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান এবং পু’লিশের তত্ত্বাবধানে সরকার নির্ধারিত মূল্যে বিক্রয়ের জন্য নির্দেশ প্রদান করেন।

একই দিন ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের একটি দল পাবনার সুজানগর পৌর বাজারের নন্দিতা সিনেমা হল রোডের ঘোষ স্টোরের মালিক শ্রী দুলাল ঘোষের বাড়ি ও গুদাম তিন হাজার ১৩৭ লিটার সয়াবিন তেল জ’ব্দ করেন। এ ঘটনায় ওই ব্যবসায়ীকে এক লাখ টাকা জ’রিমানা করেছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের আভিযানিক দল।

বুধবার দুপুর ১২টার দিকে সুজানগর পৌর বাজারের নন্দিতা সিনেমা হল রোডের ঘোষ স্টোরের মালিক শ্রী দুলাল ঘোষের বাসা বাড়ি ও গোডাউন থেকে এ তেল উ’দ্ধা’র ও জ’রিমানা করা হয়। গো’প’ন সংবাদের ভিত্তিতে অ’বৈ’ধভাবে সয়াবিন তেল মজুদ রাখার খবর পেয়ে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের পাবনার একটি অ’ভিযানিক দল এ অ’ভিযান চালায়।

এ সময় বিভিন্ন ব্র্যান্ডের ও বিভিন্ন সাইজের প্যাকেটজাত ও বোতলজাত এক হাজার ৭০২ লিটার এবং এক হাজার ৪৩৫ লিটার ড্রামভর্তি সয়াবিন তেল উ’দ্ধা’র করা হয়। ব্যবসা’প্রতিষ্ঠানের মালিক শ্রী দুলাল ঘোষকে এক লাখ টাকা জ’রিমানা করা হয়। এর আগে মঙ্গলবার জে’লার ঈশ্বরদীতে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের একটি দল ঈশ্বরদী বাজারের শ্যামল স্টোরের গুদামে অ’ভিযান চালিয়ে ১৮ হাজার লিটার সয়াবিন তেল জ’ব্দ করে।

এ সময় ওই ব্যবসায়ীকে মাত্র ২০ হাজার টাকা জ’রিমানা করা হয়। এ দুটি অ’ভিযানে নেতৃত্ব দেন ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের পাবনা অফিসের সহকারী পরিচালক জহিরুল ই’স’লা’ম।

Back to top button