জাতীয়

স্বতন্ত্র প্রার্থী হচ্ছেন বিএনপির সাক্কু-কায়সার

কুমিল্লা সিটি করপোরেশন (কুসিক) নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে না বিএনপি। দলের এমন সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে মেয়র প্রার্থী হিসেবে জে’লা নির্বাচন কার্যালয় থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন দুজন প্রার্থী। স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন অংশ নেবেন বলে জানিয়েছেন তারা।

জে’লা নির্বাচন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র কিনেছেন কুমিল্লা দক্ষিণ জে’লা বিএনপির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান সিটি মেয়র মনিরুল হক সাক্কু এবং মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি নিজাম উদ্দিন কায়সার।

মনিরুল হক সাক্কু বলেন, দল নির্বাচন করবে না। কিন্তু আমা’র দলের নেতাকর্মী ও শুভাকাঙ্ক্ষীদের অনুরোধে মনোনয়ন ফরম কিনেছি। নগরবাসীকে দীর্ঘ ১৩ বছর সেবা দিয়েছি। নেতাকর্মীসহ আমা’র অনেক ভক্ত সম’র্থক রয়েছে। তাদের সঙ্গে আলোচনা করে মনোনয়নপত্র জমা দেব।

নিজাম উদ্দিন কায়সার বলেন, কিছু আওয়ামী নামধারী বিএনপির নেতা আছে। তাদের বলে জাতীয়তাবাদী আওয়ামীলীগ। তাদের নি’র্যা’তনে দলের নেতাকর্মীরা অ’তিষ্ঠ। নির্যাতিত নেতাকর্মীদের চাপের মুখে আমি প্রার্থী হয়েছি।

কুমিল্লা দক্ষিণ জে’লা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আমিন উর রশিদ ইয়াছিন বলেন, স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে দলের কে মনোনয়ন পত্র কিনেছেন বিষয়টি আমা’র জানা নেই। কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপি অংশ নেবে না। দলের সিদ্ধান্তের বাহিরে কেউ নির্বাচনে গেলে দলের নীতিনির্ধারকরা ব্যবস্থা নেবেন।

২০১১ সালের ৬ জুলাই কুমিল্লা পৌরসভা ও সদর দক্ষিণ পৌরসভা’র মোট ২৭টি ওয়ার্ড নিয়ে সিটি করপোরেশন গঠিত হয়। ২০১২ সালের ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত প্রথম নির্বাচনে বিএনপি থেকে পদত্যাগ করে নাগরিক কমিটির ব্যানারে নৌকার প্রার্থী অধ্যক্ষ আফজাল খানকে হারিয়ে প্রথম মেয়র নির্বাচিত হন কুমিল্লা দক্ষিণ জে’লা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক মো. মনিরুল হক সাক্কু। পরে ২০১৭ সালের ৩০ মা’র্চ বিএনপির মনোনয়নে সাক্কু নৌকার প্রার্থী আঞ্জুম সুলতানা সীমাকে হারিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো কুসিকের মেয়র নির্বাচিত হন।

 

Back to top button