রাজনীতি

আসন ভাগের নির্বাচন হতে দেওয়া যাবে না

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে আসন ভাগাভাগির পরিকল্পনা করা হচ্ছে বলে অ’ভিযোগ করেছেন বিএনপির নেতারা। তারা বলছেন, আসন ভাগের নির্বাচন হতে দেওয়া যাবে না এবং যারা তাতে অংশ নেবে, তাদেরও প্রতিহত করবে বিএনপি।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবে বিএনপির ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের উদ্যোগে ‘দেশব্যাপী বিএনপিসহ বিরোধী নেতাকর্মীদের ওপর আওয়ামী স’ন্ত্রা’সীদের হা’ম’লার প্রতিবাদে’ আয়োজিত এক বি’ক্ষো’ভ সমাবেশে এসব কথা বলেন নেতারা।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেনের বাড়িতে, কুমিল্লায় লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এলডিপি) মহাসচিব রেদোয়ান আহমেদের গাড়িতে এবং ফেনীতে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা জয়নাল আবদীনের বাড়িতে হা’ম’লার প্রতিবাদ জানানো হয় এ সমাবেশ থেকে।

সভায় প্রধান অ’তিথির বক্তব্যে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস বলেন, আওয়ামী লীগের অধীন কোনো নির্বাচন হবে না। আসন ভাগাভাগির নির্বাচন হতে দেওয়া যাবে না। আসন ভাগের নির্বাচনে যারা যাবে, সরকার ও তাদের বি’রু’দ্ধে একযোগে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির আরেক সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় অ’ভিযোগ করেন, প্রতিবেশী ও বাংলাদেশ সরকারের কতিপয় লোক ফেরি করে বেড়াচ্ছে— কাকে কয়টা আসন দিয়ে নির্বাচনে নেবে। এ অধিকার কে দিয়েছে?’ আসন বণ্টনকারী এই ‘দালালদের’ ধ’রার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, যারা সরকারের ফাঁদে পা দেবে, তাদের প্রতিহত করতে হবে।

বিএনপি নেতাকর্মীদের ওপর হা’ম’লা হলে একযোগে ঝাঁপিয়ে পড়া হবে: মির্জা আব্বাস দলের নেতাকর্মীদের ওপর হা’ম’লা হলে একযোগে ঝাঁপিয়ে পড়ার আহ্বান জানিয়ে বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস বলেছেন, বিন্দুমাত্র ছাড় দেওয়া হবে না। প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন, রাজনৈতিক কর্মকা’ণ্ডে বাধা দেওয়া হবে না। এ কথার পরই খন্দকার মোশাররফের বাড়িতে হা’ম’লা করা হলো, রেদোয়ানের গাড়িতে হা’ম’লা হলো। এতে বোঝা যায়, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা কেউ প্রধানমন্ত্রীর কথা শোনেন না।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবে বিএনপির ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের উদ্যোগে ‘দেশব্যাপী বিএনপিসহ বিরোধী নেতাকর্মীদের ওপর আওয়ামী স’ন্ত্রা’সীদের হা’ম’লার প্রতিবাদে’ আয়োজিত এক বি’ক্ষো’ভ সমাবেশে এসব কথা বলেন তিনি।বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেনের বাড়িতে, কুমিল্লায় লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এলডিপি) মহাসচিব রেদোয়ান আহমেদের গাড়িতে এবং ফেনীতে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা জয়নাল আবদীনের বাড়িতে হা’ম’লার প্রতিবাদ জানানো হয় এ সমাবেশ থেকে।

প্রধান অ’তিথির বক্তব্যে মির্জা আব্বাস বলেন, মোশাররফের বাড়িতে যারা হা’ম’লা করেছিল, তারা উত্তম-মধ্যম খেয়ে ফেরত এসেছে। প্রতিরোধ শুরু হয়ে গেছে। এখন থেকে প্রত্যাঘাত করতে হবে।
বিএনপির স্থায়ী কমিটির আরেক সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় অ’ভিযোগ করেন, প্রতিবেশী ও বাংলাদেশ সরকারের কতিপয় লোক ফেরি করে বেড়াচ্ছে—কাকে কয়টা আসন দিয়ে নির্বাচনে নেবে। এ অধিকার কে দিয়েছে?’ আসন বণ্টনকারী এই ‘দালালদের’ ধ’রার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, যারা সরকারের ফাঁদে পা দেবে, তাদের প্রতিহত করতে হবে।

 

Back to top button