জাতীয়

‘বাংলাদেশের অনুরোধেই পি কে হালদারকে গ্রে’প্তা’র’

পি কে হালদারকে বাংলাদেশে এনে বিচারের মুখোমুখি করা হবে বলে জানিয়েছেন রাষ্ট্রের প্রধান আইন কর্মক’র্তা অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন। রোববার সুপ্রিম কোর্টের নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন অ্যাটর্নি জেনারেল।

এ এম আমিন উদ্দিন বলেন, বাংলাদেশ সরকারের অনুরোধেই ভা’রতের পশ্চিমবঙ্গের সরকার পি কে হালদারের বি’রু’দ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছে। বাংলাদেশের গোয়েন্দা সংস্থা তাদের জানিয়েছিল অর্থপাচারের সঙ্গে জ’ড়ি’ত ব্যক্তি সেখানে অবস্থান করছেন। সে তথ্যের ভিত্তিতে পি কে হালদারকে গ্রে’প্তা’র করা হয়েছে। এখন তাকে বাংলাদেশে এনে বিচারের মুখোমুখি করা হবে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ ও ভা’রতের ব’ন্দি বিনিময় চুক্তির আলোকে পি কে হালদারকে দেশে ফিরিয়ে আনার সুযোগ রয়েছে। তাকে ফিরিয়ে আনার জন্য সব ধরনের পদক্ষেপ নেওয়া হবে। কারণ সে জনগণের টাকা পাচার করেছে। ভা’রতে বিভিন্ন জাল-জালিয়াতির মাধ্যমে অবস্থান করে আসছিলেন। সেটা তাদের নিজস্ব বিষয়। কিন্তু আমাদের যে অর্থপাচারের বিষয়টা, আর্থিক কেলেঙ্কারির বিষয় আ’দা’লতে বিচারাধীন রয়েছে। সেই মা’ম’লায় তাকে বিচারের মুখোমুখি করা হবে। আশা করছি, দ্রুত সময়ের মধ্যে তাকে ফিরিয়ে আনা সম্ভব হবে।

আরেক প্রশ্নের জবাবে এ আইন কর্মক’র্তা বলেন, বাংলাদেশের এজেন্সিগুলোর দেওয়া তথ্যের ভিত্তিকে পি কে হালদারকে গ্রে’প্তা’র করা হয়েছে। বাংলাদেশের সংস্থাগুলো পি কে হালদারের বিষয়ে তৎপর। তৎপরতার কারণেই তাকে গ্রে’প্তা’র করা সম্ভব হয়েছে। আমাদের দেশের যে টাকা ভা’রতে পাচার করা হয়েছে। আম’রা তা ফেরত আনার চেষ্টা করবো। কারণ এটা জনগণের টাকা।

Back to top button