জাতীয়

নির্বাচনী আচরণ বিধি লঙ্ঘন করলে জে’ল ও জ’রিমানা

আগামী ১৫ জুন কুমিল্লা সিটি করপোরেশন (কুসিক) নির্বাচনে কোনো প্রকার নির্বাচনী আচরণ বিধি লঙ্ঘন (মিছিল বা শো-ডাউন) করা যাবে না বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশন (ইসি)। কেউ নির্বাচনী আচরণ বিধি লঙ্ঘন করলে জে’লসহ জ’রিমানা হতে পারে। সোমবার (১৬ মে) গণমাধ্যম কর্মীদের নির্বাচন কমিশনের (ইসি) যুগ্ম সচিব এস এম আসাদুজ্জামান এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

গণমাধ্যমকে পাঠানো ইসির এ সংশ্লিষ্ট বি’জ্ঞ’প্তিতে বলা হয়েছে, মঙ্গলবার (১৭ মে) কুমিল্লা সিটি করপোরেশনসহ, ছয়টি পৌরসভা ও ১৩৮টি ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সাধারণ নির্বাচনের মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন। এসব নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিলের সময় কোনো ধরনের মিছিল বা শো-ডাউন করা যাবে না। নির্বাচনী আচরণবিধি অনুযায়ী কোনো প্রার্থী পাঁচজনের বেশি সম’র্থক নিয়ে মনোনয়নপত্র দাখিল করতে পারবেন না।

সিটি করপোরেশন নির্বাচন (নির্বাচন আচরণ) বিধিমালা, ২০১০ এর বিধি ৬ এর উপবিধি ৪ অনুযায়ী রিটার্নিং বা সহকারী রিটার্নিং অফিসারের কাছে মনোনয়নপত্র দাখিলের সময় কোনো প্রকার মিছিল কিংবা শো-ডাউন করা যাবে না বা কোনো প্রার্থী পাঁচজনের অধিক সম’র্থক নিয়ে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ বা জমা দিতে পারবেন না। এছাড়া নির্বাচনপূর্ব সময় অর্থাৎ নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা থেকে নির্বাচনের ফলাফল গেজেটে প্রকাশের তারিখ পর্যন্ত কোনো প্রকার মিছিল বা কোনোরূপ শো-ডাউন করা যাবে না।

নির্বাচনী আরচণবিধি লঙ্ঘন শা’স্তিযোগ্য অ’প’রা’ধ। এ বিধান লঙ্ঘন করলে অনধিক ছয়মাস কারাদ’ণ্ড অথবা অনধিক ৫০ হাজার টাকা অর্থদ’ণ্ড বা উভয়দ’ণ্ডে দ’ণ্ডনীয় হবেন। ইসির ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, এসব নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ তারিখ ১৭ মে, বাছাই ১৯ মে, আপিল ২০ থেকে ২২ মে, আপিল নিষ্পত্তি ২৩ থেকে ২৫ মে, প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ২৬ মে, প্রতীক বরাদ্দ ২৭ মে এবং ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে ১৫ জুন।

Back to top button