জাতীয়

বঙ্গবন্ধু টানেলের টোলও আদায় করবে চীনা কোম্পানি

দেশের অন্যতম মেগা প্রকল্প কর্ণফুলী নদীর তলদেশে ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান টানেল’ নির্মাণের দায়িত্বে থাকা চীনা কোম্পানিকেই এর রক্ষণাবেক্ষণ ও টোল আদায় কার্যক্রম পরিচালনারও দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।বুধবার জাতীয় অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সভায় চায়না কমিউনিকেশন্স কনস্ট্রাকশন কোম্পানি লিমিটেডকে (সিসিসিসি) এ দায়িত্ব দেওয়ার প্রস্তাব নীতিগতভাবে অনুমোদন দেওয়া হয়।

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মু’স্তফা কা’মালের সভাপতিত্বে কমিটির সভা শেষে ভা’র্চুয়াল ব্রিফিংয়ে সভা’র বিভিন্ন সিদ্ধান্ত জানান মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অ’তিরিক্ত সচিব জিল্লুর রহমান চৌধুরী।জিল্লুর রহমান চৌধুরী বলেন, ‘চীন সরকারের সঙ্গে আমাদের যে চুক্তি হয়েছে, সে অনুযায়ী তাদেরকে কাজ দিয়ে নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।’

চট্টগ্রামকে চীনের সাংহাইয়ের ‘ওয়ান সিটি টু টাউন’ এর আদলে গড়ে তুলতে কর্ণফুলী নদীর দুইপাড়ে এ প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে সরকার।নির্মাণাধীন ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান টানেল’ কক্সবাজার ও বন্দরনগরী চট্টগ্রামের মধ্যে উন্নত যোগাযোগের সেতুবন্ধ তৈরি করার মাধ্যমে বিনিয়োগ উৎসাহী করবে বলে আশা করা হচ্ছে।

বাংলাদেশ ও চীনের যৌথ অর্থায়নে প্রকল্পটি ২০১৫ সালে অনুমোদন পায়। এটি বাস্তবায়নে ব্যয় হবে ১০ হাজার ৩৭৪ কোটি টাকা।এর মধ্যে বাংলাদেশ সরকার দিচ্ছে ৩ হাজার ৯৬৭ কোটি ২১ লাখ টাকা এবং চীন সরকার দিচ্ছে ৫ হাজার ৯১৩ কোটি ১৯ লাখ টাকা। কাজ শুরু হয় ২০১৮ সালের শেষের দিকে। চলতি বছরের ডিসেম্বরের মধ্যে টানেলের কাজ শেষ করার কথা রয়েছে।

 

Back to top button