রাজনীতি

জাতীয় ঐক্য গঠনে বিএনপির আনুষ্ঠানিক আলোচনা শুরু

গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের দাবিতে জাতীয় ঐক্য সৃষ্টির লক্ষ্যে আজ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে আলোচনা শুরু করছে বিএনপি।মঙ্গলবার রাজধানীর গুলশানে বিএনপি চেয়ারপাসনের গুলশান রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে একথা জানান দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ই’স’লা’ম আলমগীর।

তিনি জানান, গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের দাবিতে জাতীয় ঐক্য সৃষ্টির লক্ষ্যে আনুষ্ঠানিকভাবে রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে আলোচনা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএনপি। এখন আনুষ্ঠানিকভাবে এটা শুরু করা হচ্ছে।

আলোচনা কবে থেকে শুরু হবে- এই প্রশ্নের জবাবে মির্জা ফখরুল বলেন, এটা আজ থেকেই শুরু হবে। আর শিডিউলটা যখন আপনাদেরকে জানানো হবে, তখন আপনারা জানতে পারবেন।আজকে কি কোনো রাজনৈতিক দলের সঙ্গে বৈঠক আছে- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আছে। এ বিষয়ে আমি আপনাদেরকে একটু পরে জানিয়ে দেব।

এই সংলাপের মূল উদ্দেশ্য কী জানতে চাইলে ফখরুল বলেন, মূল উদ্দেশ্য হলো- গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার। এই ফ্যাসিবাদি সরকার, যারা সমস্ত অধিকারগুলোকে কেড়ে নিয়েছে- এগুলো ফিরিয়ে নিয়ে এসে জনগণ ও ভোটের অধিকারকে প্রতিষ্ঠিত করাই মূল লক্ষ্যে। এজন্য আ’ন্দোলন তৈরি করা। এই আ’ন্দোলন সৃষ্টি করার জন্য এই ঐক্যের আলোচনা শুরু করা হচ্ছে।

ঐক্যের মূল ভিত্তিটা কি হবে- এই প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, মূল যে দাবিগুলো আছে, এর মধ্যে প্রথম দাবি- বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ সব রাজব’ন্দিদের মুক্তি দাবি, দ্বিতীয় হচ্ছে, এই সরকারকে পদত্যাগ করতে হবে এবং পদত্যাগ করে নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর করতে হবে, তৃতীয় হচ্ছে, সংসদ বাতিল করতে হবে।
‘তারপরে পুনর্গঠিত নির্বাচন কমিশনের অধীনে একটি অবাধ-সুষ্ঠু এবং সবার অংশগ্রহণের মাধ্যমে একটি নির্বাচন অনুষ্ঠিত করতে হবে। সেই নির্বাচনের মধ্যে দিয়ে সংসদ গঠিত হবে। এরপরে সরকার গঠিত হবে। এই দাবিগুলোই প্রধান দাবি।

এখন অন্যান্য দলগুলোর সঙ্গে আম’রা এই আলোচনাগুলো করবো। আর তাদের দাবিগুলো নিয়ে আলোচনা করে আমাদের একটা একক দাবি তৈরী করা হবে। তার ভিত্তিতে আম’রা একটা ঐক্যবদ্ধ আ’ন্দোলন শুরু করব।এটাকে কি জোট বলছেন-জানতে চাইলে বিএনপি মহাসচিব বলেন, আম’রা একটা জোট বলছি না। আলোচনার মাধ্যমেই সেগুলো নির্ধারিত হবে।

আলোচনা কি ২০ দলীয় জোটের সঙ্গে হবে- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আলোচনা সবার সঙ্গেই হবে। আর ২০ দলীয় জোটে তো এখন পর্যন্ত আম’রা বিলুপ্ত করি নাই। এই জোটের কি হবে, সেটা ওই আলোচনার মধ্যে দিয়ে চূড়ান্ত করা হবে। আর জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের বিষয়েও একই কথা।জামায়াতের সঙ্গেও কি আলোচনা করা হবে- জানতে চাইলে মির্জা আলমগীর বলেন, অবশ্যই করা হবে। তাদের সঙ্গে কথা না বলে কেমন করে হবে? সবার সঙ্গেই তো কথা বলা হবে।

Back to top button