জাতীয়

ডিভোর্সের খরচ বাড়বে

আগামী ২০২২-২৩ অর্থবছরে প্রস্তাবিত নতুন বাজেট পাস হলে স্ট্যাম্প আইন পরিবর্তনের কারণে বাড়বে বিয়ে বিচ্ছেদ নিবন্ধনের খরচ, ফলে এক্ষেত্রে গুণতে হবে বাড়তি টাকা।অর্থমন্ত্রী আ হ ম মু’স্তফা কা’মাল বৃহস্পতিবার (৯ জুন) জাতীয় সংসদে ২০২২-২৩ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট উপস্থাপনের সময় স্ট্যাম্প আইনের বিভিন্ন ধারায় পরিবর্তনের প্রস্তাব আনেন।

প্রস্তাব অনুযায়ী, ডিভোর্স স্ট্যাম্পের দাম আগের ৫০০ টাকা থেকে বেড়ে হবে ২ হাজার টাকা।ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের হিসাব অনুযায়ী, ২০২১ সালে এই এলাকায় ডিভোর্সের আবেদন জমা পড়ে ৭ হাজার ২৪৫টি, যা আগের বছরের তুলনায় ১৪ শতাংশ বেশি। ২০২০ সালে ছিল ৬ হাজার ৩৪৫টি।

অন্যদিকে, ঢাকা উত্তর সিটিতে ২০২০ সালে ডিভোর্সের আবেদন জমা পড়েছে ৬ হাজার ১৬৮টি। ২০২১ সালে তা কমে আসে ৪ হাজার ৬৭৪টিতে।২০২০ সালে দুই সিটি করপোরেশনের মোট ১২ হাজার ৫১৩টি ডিভোর্সের আবেদন মধ্যে ৮ হাজার ৪৮১টি আবেদন করেছেন না’রীরা। বাকি ৪ হাজার ৩২টি বিচ্ছেদ চেয়েছেন পুরুষ। সে হিসেবে না’রীদের তরফে ডিভোর্স বেশি দেওয়া হয়েছে ৭০ শতাংশ।

২০২০ সালে ঢাকা উত্তর সিটির ৩৮৪ দম্পতি তালাকের আবেদন করলেও আলোচনার মাধ্যমে বিবাদ মিটিয়েছেন বলে জানিয়েছেন সিটির কর্মক’র্তারা।‘কোভিডের অ’ভিঘাত পেরিয়ে উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় প্রত্যাবর্তন’ স্লোগান নিয়ে ২০২২-২৩ অর্থবছরের জন্য ছয় লাখ ৭৮ হাজার ৬৪ কোটি টাকার বাজেট উপস্থাপন করা হয়েছে জাতীয় সংসদে। নতুন এ বাজেটে মোট দেশজ উৎপাদনে (জিডিপি) প্রবৃদ্ধি অর্জনের লক্ষ্যমাত্রা ধ’রা হচ্ছে ৭ দশমিক ৫ শতাংশ। এতে মূল্যস্ফীতি ধ’রা হচ্ছে ৫ দশমিক ৫ শতাংশ।

স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম অর্থমন্ত্রী হিসেবে তাজউদ্দীন আহম’দ ৭৮৬ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা করেন ১৯৭২ সালে। সেই থেকে যাত্রা শুরু হয়ে আজ ৫১তম বাজেট পাচ্ছে বাংলাদেশ।

Back to top button