জাতীয়

মহানবীকে নিয়ে কটূক্তি: সারাদেশে মু’সল্লিদের বি’ক্ষো’ভ

বিশ্ব মু’সলিম উম্মাহর হৃদয়ের স্পন্দন মহানবী হযরত মুহাম্ম’দ (সা.) স’ম্প’র্কে ভা’রতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির দুই নেতার কটূক্তির প্রতিবাদে রাস্তায় নেমেছেন দেশের লাখ লাখ হাজারো মু’সল্লি।

শুক্রবার (১১ জুন) জুমা’র নামাজের পর নওগাঁ, রাজশাহী, পঞ্চগড়সহ বিভিন্ন অঞ্চলে বি’ক্ষো’ভ মিছিল সমাবেশ করেন ধ’র্মপ্রা’ণ মু’সল্লিরা।

জানা গেছে, রাজশাহীতে তৌহিদী জনতা ও ই’স’লা’মী আ’ন্দোলন বাংলাদেশ মহানগরীর সাহেববাজার এবং মনি চত্বর থেকে বি’ক্ষো’ভ মিছিল হয়েছে। বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে মিছিল দুটি একত্রিত হয়ে সাহেববাজার জিরো পয়েন্টে সমাবেশে মিলিত হয়। ঘণ্টাব্যাপী চলা এ বি’ক্ষো’ভ কর্মসূচিতে বিজেপি ও ভা’রতের প্রতি নিন্দা জানানো হয়।

মিছিলে বার বার ‘বিশ্বনবীর অ’পমান, মু’সলিম’রা সইবে না’, ‘নারায়ে তাকবীর- আল্লাহু আকবার’ ধ্বনি উচ্চারিত হতে থাকে।বক্তারা বলেন, মু’সলমানদের টার্গেট করে ভা’রতের উগ্র হিন্দুত্ববাদী রাজনীতি সবার জন্য বিপদজনক। সেটি নোংরামির পর্যায়ে চলে গেছে। এ সময় ভা’রত সরকারের প্রতি ধ’র্মীয় সম্প্রীতির আহ্বান জানিয়ে রাষ্ট্রীয়ভাবে নিন্দা জ্ঞাপনের প্রস্তাব করেন বি’ক্ষো’ভকারীরা।

মহানবী হযরত মুহাম্ম’দ (সা.) ও তার স্ত্রী’ আয়েশা (রা.) স’ম্প’র্কে ভা’রতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির নেতা নুপুর শর্মা ও নাভিন কুমা’র জিন্দালের অবমাননাকর বক্তব্যের প্রতিবাদে জে’লায় মিছিল ও সমাবেশ করে ই’স’লা’মী আ’ন্দোলন বাংলাদেশ নওগাঁ জে’লা শাখা। শুক্রবার জুমা’র নামাজ শেষে হাজারো মু’সল্লি এ কর্মসূচি পালন করেন।

নামাজ শেষে বিভিন্ন ম’স’জিদ থেকে মু’সল্লিরা শহরের নওজোয়ান মাঠে এসে জমায়েত হন। সেখানে এক সংক্ষিপ্ত মানববন্ধন শেষে বি’ক্ষো’ভ মিছিলসহ ব্রিজের মোড়ে কেন্দ্রীয় জামে ম’স’জিদে এসে মিলিত হন। পরে সেখানে বি’ক্ষো’ভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন ই’স’লা’মী আ’ন্দোলন বাংলাদেশ নওগাঁ জে’লা কমিটির সভাপতি মাস্টার মো. আশরাফুল আলম। বক্তারা মু’সলমানের প্রা’ণের মানুষ মহানবীর প্রতি কটূক্তি করা দুই বিজেপি নেতাকে অবিলম্বে গ্রে’প্তা’র করে শা’স্তির আওতায় নেওয়ার দাবী জানান।

পঞ্চগড়েও নুপুর শর্মা ও কুমা’র জিন্দালের শা’স্তি চেয়ে বি’ক্ষো’ভ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ ছাড়া বি’ক্ষো’ভ সমাবেশ ও প্রতিবাদ মিছিল করেছেন অঞ্চলটির মু’সল্লিরা।জুমা’র নামাজের পর শহরের বিভিন্ন ম’স’জিদ থেকে মু’সল্লিরা শহরের শেরে বাংলা পার্কের চৌড়ঙ্গী মোড়ের সামনে সমবেত হন। পরে বিভিন্ন ধ’র্মীয় সংগঠনের ব্যানারে বি’ক্ষো’ভ মিছিল শুরু হয়।

মু’সল্লিরা মিছিল নিয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে একই স্থানে এসে গিয়ে সমাবেশ করেন। এ সময় ‘বিশ্বনবীর অ’পমান, সইবে নারে মু’সলমান’, ‘ই’স’লা’মের শত্রুরা, হুঁশিয়ার সাবধান’, ‘নুপুর শর্মা’র দুই গালে, জুতা মা’রো তা’লে তা’লে’ ইত্যাদি স্লোগান দেওয়া হয়।

বক্তারা বলেন, মহানবী হযরত মুহাম্ম’দ (সা.) স’ম্প’র্কে নুপুর শর্মা যে মন্তব্য করেছেন তা ন্যক্কারজনক। বিশ্বনবীকে নিয়ে কটূক্তি কোনোভাবে বরদাশত করা হবে না। আম’রা বিজেপির ওই দুই নেতাসহ যারা এর সাথে জ’ড়ি’ত তাদের সকলের দৃষ্টান্ত মূলক শা’স্তি দাবী করছি। যাতে আর কোনো অন্য ধ’র্মের মানুষ কোনো ধ’র্মের মানুষকে অবমাননা না করে।

এ সমাবেশে বক্তব্য দেন সম্মিলিত খতমে নবুয়ত সংরক্ষণ পরিষদের সভাপতি মুফতি আ. ন. ম আব্দুল করিম, ঈ’মান আক্বীদা রক্ষাকারী কমিটির সভাপতি ড. আব্দুর রহমান, পঞ্চগড় জে’লা ই’স’লা’মী আ’ন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক ক্বারী আব্দুল্লাহ, হাফেজ মীর মোর্শেদ তুহিন প্রমুখ।মহানবীকে নিয়ে কটূক্তির প্রতিবাদে শহরের পাশাপাশি জে’লার তেঁতুলিয়া, আটোয়ারী, বোদা ও দেবীগঞ্জ উপজে’লায় বি’ক্ষো’ভ সমাবেশ ও প্রতিবাদ মিছিল করেছেন মু’সল্লিরা।

সুনামগঞ্জ, রাঙামাটি, বাগেরহাটেও মহানবীকে নিয়ে কটূক্তির প্রতিবাদে বি’ক্ষো’ভ, মিছিল, সমাবেশ করেছেন ধ’র্মপ্রমাণ মু’সল্লিরা।

Back to top button