জাতীয়

এমপিপুত্রের বি’রু’দ্ধে মা’ম’লা, চাকরির জন্য ঘুষ নেওয়ার অ’ভিযোগ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ (সরাইল-আশুগঞ্জ) আসনের বিএনপিদলীয় সংসদ সদস্য (এমপি) আব্দুস ছাত্তার ভূইয়ার ছে’লে মাইনুল হাসান তুষারের বি’রু’দ্ধে চাকরি দেওয়ার আশ্বা’সে ঘুষ নেওয়ার অ’ভিযোগ পাওয়া গেছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আ’দা’লতে দায়ের করা মা’ম’লায় হোসনা আক্তার নামে এক না’রী এ অ’ভিযোগ আনেন। ব্রাহ্মণবাড়িয়া সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (সদর) আফরিন আহমেদ হ্যাপীর আ’দা’লত মা’ম’লা’টি আমলে নিয়ে ত’দ’ন্তের জন্য সদর থা’নার ওসিকে নির্দেশ দিয়েছেন।

মা’ম’লায় অ’ভিযোগ করা হয়, এমপিপুত্র ঘুষ নেওয়ার পর তাঁর বাবার কাছ থেকে চাকরির আবেদনে সুপারিশ নিয়ে দেন।চাকরি না হওয়ায় টাকা ফেরত চাইলে এমপিপুত্র টালবাহানা শুরু করায় তিনি মা’ম’লা’টি দায়ের করেছেন।

মা’ম’লায় উল্লেখ করা হয়, ২০১৯ সালে সরাইল উপজে’লা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মাস্টাররোলে অফিস সহায়ক পদে চাকরির জন্য ওই উপজে’লার গুনারা গ্রামের মৃ’ত রহমত হোসেনের মে’য়ে হোসনা আক্তার আবেদন করেন। চাকরির পূর্ণ নিশ্চয়তার জন্য তিনি সংসদ সদস্যের ছে’লে মাইনুল হাসানের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। চাকরির আশায় ২০১৯ সালের ৫ জুলাই ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর এলাকার মেড্ডা সবুজবাগে মাইনুল হাসানের বাসায় তাঁর হাতে সাড়ে তিন লাখ টাকা তুলে দেন। টাকা পাওয়ার পর মাইনুল তাঁর বাবার সিল ও স্বাক্ষরসহ সুপারিশ করা একটি দরখাস্ত হোসনা আক্তারের কাছে দিয়ে তা উপজে’লা স্বাস্থ্য কর্মক’র্তাকে দিতে বলেন এবং সিভিল সার্জনের নম্বর দিয়ে যোগাযোগ করতে বলেন। তবে অফিস সহায়ক পদে সুপারিশকৃত আবেদন জমা দেওয়ার পরও হোসনার চাকরি হয়নি। পরে লোকজন নিয়ে তুষারের বাসায় গিয়ে এ বিষয়ে জিজ্ঞেস করলে তিনি তা অস্বীকার করেন।

মাইনুল হাসান তুষার বলেন, ‘মা’ম’লা হওয়ার বিষয়টি শুনেছি। তবে এমন অ’ভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা। আমা’র বাবা ছয়বারের এমপি। ওনার সুনাম ক্ষুণ্ণ করতে ও রাজনীতিতে আমা’র আসাকে বাধাগ্রস্ত করতে দলীয় লোকজন ওই না’রীকে দিয়ে মা’ম’লা’টি করিয়েছেন। ‘

Back to top button