জাতীয়

সীতাকুণ্ডে বি’স্ফোরণ: মা’রা গেল আরেক ফায়ার ফাইটার

সীতাকুণ্ডের ডিপোতে আ’গু’ন নেভাতে গিয়ে দ’গ্ধ হয়ে আট দিন চিকিৎসাধীন থাকার পর অবশেষে মৃ’ত্যুর কাছে হার মানলেন ফায়ারম্যান গাউসুল আজম (২৩)।

শনিবার রাত ৩টা ১৩ মিনিটে রাজধানীর শেখ হাসিনা বার্ন ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মা’রা যান।গাউসুল আজম যশোরের মনিরামপুরের খাটুয়াডাঙ্গা গ্রামের আজগর আলীর ছে’লে।

গত ৪ জুন রাতে চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের ডিপোতে আ’গু’ন নেভাতে পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে তিনি অ’গ্নিদ’গ্ধ হন। তার শরীরের ৭৫ ভাগ পুড়ে যায়। নেওয়া হয় শেখ হাসিনা বার্ন ইনস্টিটিউটে। সেখানে লাইফসা’পোর্টে রাখা হয়।

ইনস্টিটিউট প্রধান সামন্ত লাল সেনের তত্ত্বাবধায়নে চলতে থাকে চিকিৎসা। অবশেষে সবাইকে কাঁদিয়ে না ফেরার দেশে চলে যান গাউসুল আজম।

হাসপাতা’লে সার্বক্ষণিক সঙ্গে থাকা গাউসুল আজমের ভগ্নিপতি মিজানুর রহমান জানান, অবস্থার অবনতির খবর পেয়ে তিনি ভেতরে যাওয়ার ১০-১৫ সেকেন্ড পর তার শ্যালক মা’রা যান।

সীতাকুণ্ডে বিএম ডিপোতে ৪ জুন রাত ১০টার দিকে আ’গু’ন লাগে। চার দিন পর আ’গু’ন নেভে। এ ঘটনায় গাউসুল আজমকে নিয়ে ফায়ার সার্ভিসের ১০ কর্মীর মৃ’ত্যু হলো। আর নি’হ’তের সংখ্যা প্রায় অর্ধশত।

Back to top button