জাতীয়

বিএনপির মিছিলে পু’লিশের বাধা : আ’হত ২০, আ’ট’ক ১৩

বরগুনায় বিএনপির মিছিলে পু’লিশি বাধা ও সং’ঘ’র্ষে অন্তত ২০ জন আ’হত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। সোমবার বিকেল ৫টায় একেস্কুল চৌরাস্তা এলাকায় এ সং’ঘ’র্ষের ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, বিএনপির কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে বরগুনার আমতলী উপজে’লা বিএনপি সোমবার বিকেল ৫টায় নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্য বাড়ানোর প্রতিবাদে বি’ক্ষো’ভ কর্মসূচি পালন করে। এ সময় পু’লিশ বাধা দিলে সং’ঘ’র্ষে পাঁচ পু’লিশ-সদস্যসহ ২০ জন নেতা-কর্মী আ’হত হন।পু’লিশ সূত্রে জানা যায়, সোমবার বিকেল সাড়ে ৪টার সময় আমতলী উপজে’লা বিএনপি ও তার সহযোগী সংগঠন একেস্কুল চৌরাস্তা মোড় এলাকায় অবস্থিত বিএনপির দলীয় কার্যালয়ের সামনে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে আমতলী উপজে’লা বিএনপি নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্য বাড়ানোর প্রতিবাদে সমাবেশ ও বি’ক্ষো’ভ মিছিলের আয়োজন করে। সভা শেষে বিএনপির নেতা কর্মীরা সড়কে বি’ক্ষো’ভ করতে চাইলে পু’লিশ তাদেরকে বাধা দেয়।

এ সময় পু’লিশের সাথে বিএনপি নেতা কর্মীরা সং’ঘ’র্ষে জড়িয়ে পরে। সং’ঘ’র্ষের একপর্যায়ে বিএনপির ছোঁড়া ইটের আ’ঘাতে এসআই দাদন মিয়া (৪৩), এসআই শহীদুল আলম হাওলাদার (৪৮), এএসআই কা’মাল উদ্দিন মিয়া (৩৮) এএসআই সোহরাব (৩৪) পু’লিশ-সদস্য কবির খান (৪০) আ’হত হন।

আ’হতদের মধ্যে গুরুতর অবস্থায় দাদন মিয়া ও শহীদুল আলম হাওলাদারকে আমতলী হাসপাতা’লে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনার পরপরই পু’লিশ বিএনপি অফিসসহ এর আশপাশ এলাকায় অ’ভিযান চালিয়ে উপজে’লা বিএনপির সভাপতি জালাল উদ্দিন ফকির, পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কা’ম’রুজ্জামান হিরু, যুবদলের সদস্য কাউন্সিলর সামসুল হক চৌকিদার, মৎস্যজীবি দলের উপজে’লা সভাপতি কবির তালুকদারসহ ১৩ জন নেতা-কর্মীকে ঘটনাস্থল থেকে আ’ট’ক করেছে পু’লিশ।

আমতলী উপজে’লা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জহিরুল ই’স’লা’ম মামুন বলেন, পু’লিশ বিনা কারণে আমাদের শান্তিপূর্ণ সমাবেশে লা’ঠিচার্জ করে নেতা-কর্মীদের আ’ট’ক করেছে।এ বিষয়ে আমতলী থা’নার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) একেএম মিজানুর রহমান বলেন, বিনা উস্কানিতে বিএনপির নেতা কর্মীরা আমাদের পু’লিশের উপর হা’ম’লা করেছে। হা’ম’লায় পু’লিশের ৫ সদস্য আ’হত হয়েছে। আ’হতদের মধ্যে দুইজনকে গুরুতর অবস্থায় হাসপাতা’লে ভর্তি করা হয়েছে। এ সময় তিনি আরো বলেন, সরকারি কাজে বাধাদানসহ পু’লিশের ওপর হা’ম’লার ঘটনায় মা’ম’লার প্রস্ততি চলছে। এ পর্যন্ত বিএনপির ১৩ নেতা-কর্মীকে আ’ট’ক করা হয়েছে।

 

Back to top button