জাতীয়

সাবেক মন্ত্রী মোশাররফের ভাইয়ের জামিন আবেদন খারিজ

দুই হাজার কোটি টাকা পাচারের অ’ভিযোগের মা’ম’লায় গ্রে’প্তা’র সাবেক স্থানীয় সরকার মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেনের ভাই খোন্দকার মোহতেশাম হোসেন বাবরের জামিন আবেদন উত্থাপিত হয়নি ম’র্মে খারিজ করে দিয়েছেন হা’ই’কো’র্ট।

মঙ্গলবার (১৪ জুন) বিচারপতি মো. নজরুল ই’স’লা’ম তালুকদার ও বিচারপতি কাজী মো. ইজারুল হক আকন্দের হা’ই’কো’র্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আ’দা’লতে রাষ্ট্রপক্ষে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক।আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মিজানুর রহমান।

গত ২৪ মা’র্চ ঢাকার বিশেষ জজ আ’দা’লত-১০ এর বিচারক নজরুল ই’স’লা’ম বাবরের জামিন নামঞ্জুর করেছেন। এরপর তিনি হা’ই’কো’র্টে জামিন আবেদন করেন।দুই হাজার কোটি টাকা পাচারের অ’ভিযোগে ২০২০ সালের ২৬ জুন বরকত ও রুবেলের বি’রু’দ্ধে রাজধানীর কাফরুল থা’নায় মা’ম’লা দায়ের করেন সিআইডির পরিদর্শক এস এম মিরাজ আল মাহমুদ।

মা’ম’লার এজাহারে বলা হয়, ২০১০ সাল থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত ফরিদপুরে এলজিইডি, বিআরটিএ, সড়ক বিভাগসহ বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের কাজের ঠিকাদারি নিয়ন্ত্রণ করে বিপুল অ’বৈ’ধ সম্পদের মালিক হয়েছেন বরকত ও রুবেল। এছাড়া মা’দ’ক ব্যবসা ও ভূমি দখল করে অ’বৈ’ধ সম্পদ গড়েছেন তারা। ২৩টি বাস, ট্রাকসহ বিলাসবহুল গাড়ির মালিক হয়েছেন ওই দুই ভাই। উল্লেখযোগ্য পরিমাণ অর্থ হুন্ডির মাধ্যমে বিদেশে পাচার করেছেন তারা। রাজবাড়ীতে ১৯৯৪ সালের ২০ নভেম্বর এক আইনজীবী খু’ন হন। সেই হ’ত্যা মা’ম’লার আ’সা’মি ছিলেন বরকত ও রুবেল।

এজাহারে আরও বলা হয়, ২০২০ সালের ১৮ জুন মিরাজ আল মাহমুদ ত’দ’ন্ত কর্মক’র্তা নিযু’ক্ত হন।গত ৭ মা’র্চ দিনগত রাত ৩টার দিকে রাজধানী ঢাকা থেকে তাকে গ্রে’প্তা’র করা হয়।

Back to top button