জাতীয়

৪ ঘণ্টায়ও নিয়ন্ত্রণে আসেনি আদমজী ইপিজেডের আ’গু’ন

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে আদমজী ইপিজেড এলাকায় নির্মাণাধীন পাওয়ার প্ল্যান্টে লাগা আ’গু’ন ৪ ঘণ্টায়ও নিয়ন্ত্রণে আসেনি। আ’গু’ন নিয়ন্ত্রণে বর্তমানে ফায়ার সার্ভিসের নয়টি ইউনিট কাজ করছে।

এদিকে আ’গু’ন লাগার পর নারায়ণগঞ্জসহ আশপাশের এলাকার গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করে রাখা হয়েছে।দুপুর ১২টা পর্যন্ত আ’গু’নের তীব্রতা ও গ্যাসের সরবরাহ চলমান থাকায় কাছে যেতে পারেননি ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা। ১২টার দিকে গ্যাস লাইনের গ্যাস সরবরাহ কমিয়ে ধীরে ধীরে বন্ধ করা হচ্ছে। গ্যাস সরবরাহ কমিয়ে আ’গু’ন নেভানোর কাজে গতি এনেছে ফায়ার সার্ভিস।

এদিকে কোনো গণমাধ্যমকর্মীকে আদমজী ইপিজেডে প্রবেশ করতে দিচ্ছে না বেপজা কর্তৃপক্ষ।

বেপজার জিএম আহসান কবির জানান, আ’গু’ন লাগার সঙ্গে সঙ্গে আম’রা ইপিজেডের সব শ্রমিককে নিরাপদে বের করে নিয়ে এসেছি। আ’গু’ন নিয়ন্ত্রণ না আসা পর্যন্ত তিনি বিস্তারিত জানাতে পারবেন না বলে ফোনটি কে’টে দেন।

এর আগে শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে আ’গু’নের ঘটনা ঘটে।ইপিজেডের ভেতরে নির্মাণাধীন পাওয়ার প্ল্যান্টের পাইলিংয়ের কাজ করার সময় গ্যাস লাইন ফেটে যায়। সেখান থেকেই ভ’য়াবহ অ’গ্নিকা’ণ্ডের ঘটনা ঘটেছে বলে ধারণা ফায়ার সার্ভিসকর্মীদের।

আ’গু’নের লেলিহান এত ওপরে উঠে যে তিন কিলোমিটার দূর থেকে দেখা যায়। অনেকেই দূর থেকে ভিডিও করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমও আ’গু’ন লাগার ভিডিও আপলোড করেছেন।

নারায়ণগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের উপসহকারী পরিচালক আব্দুল্লাহ আল আরেফীন বলেছেন, পাইলিংয়ের কাজ চলার সময় গ্যাস লাইন ফেটে ভ’য়াবহ আ’গু’ন লাগে। ঘটনার পর পর উচ্চচাপসম্পন্ন গ্যাস লাইন বন্ধ করা হয়েছে। তবে গ্যাস সরবরাহ বন্ধের পরও আ’গু’ন নিয়ন্ত্রণে আসেনি। আ’গু’ন কোনো ফ্যাক্টরিতে নয়, গ্যাস লাইনে লেগেছে। আমাদের ইপিজেড, হাজিগঞ্জ ও মণ্ডলপাড়া স্টেশনের ফায়ার ফাইটাররা আ’গু’ন নেভাতে কাজ করছেন।

Back to top button