জাতীয়

বিএনপির জন্য ভোটের আগ পর্যন্ত অ’পেক্ষা করবো

বিএনপির জন্য ভোটের আগ পর্যন্ত অ’পেক্ষা করা হবে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনার (ইসি) মো. আলমগীর। বুধবার (২০ জুলাই) বেলা চারটার দিকে আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবনে নিজ কার্যালয়ে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘উনারা (বিএনপি) এলে ভালো হতো। আমাদের চলমান সংলাপ ভালো হয়েছে। রাজনৈতিক দলগুলো সুচিন্তিত মতামত দিয়েছেন। এগুলো আমাদের ভালো নির্বাচন করার জন্য সহায়ক হবে। তবে যারা আসেননি তারা এলে আরও ভালো হতো। এজন্য আমাদের আরও কিছুদিন অ’পেক্ষা করতে হবে।

তিনি জানান, জাতীয় নির্বাচন এখনও অনেক দেরি রয়েছে। আগামী বছরের শেষে অথবা পরের বছরের প্রথম দিকে নির্বাচন হবে। এখনও যথেষ্ট সময় রয়েছে।বিএনপিকে আনার বিষয়ে আর কোনো উদ্যোগ নেবেন কি-না? এমন প্রশ্নের জবাবে এ নির্বাচন কমিশনার বলেন, ‘আম’রা তো বারেবারেই উদ্যোগ নিয়ে যাচ্ছি। আগেও ইভিএম এর বিষয়ে যোগাযোগ করেছি, আসেননি। এখন যে সংলাপ সে বিষয়ে যোগাযোগ করেছি, আসেননি। সামনে যোগাযোগ আবারও থাকবে।’

ইসির অব্যাহত প্রয়াস ভোটের আগ পর্যন্ত থাকবে বলে উল্লেখ করেন তিনি।বিএনপির জন্য কতদিন অ’পেক্ষা করা হবে জানতে চাইলে নির্বাচন কমিশনার মো. আলমগীর স্মিত হেসে বলেন, ‘নির্বাচনের আগ পর্যন্ত।’এর আগে গণতন্ত্রী পার্টির সঙ্গে সংলাপ শেষে বিএনপির সংলাপে না আসা প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেন, ‘আম’রা ওয়েট করবো।’

সিইসি আরও বলেন, ‘এ পর্যন্ত যতগুলো পার্টি সংলাপে অংশ নিয়েছে, তাদের সকলের মনোভাব ইতিবাচক। তারা দাবি করেছেন, ভোটাররা তাদের ভোটাধিকার যেন প্রয়োগ করতে পারেন, এই বিষয়টি যাতে নিশ্চিত হয়। আম’রাও বলেছি সত্যিকার অর্থে এটিই আমাদের একমাত্র দায়িত্ব যে, প্রত্যেকটা ভোটার যেন ভোট’কেন্দ্রে গিয়ে তার ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারেন। এটাই গণন্ত্রের ভিত্তি। এই ক্ষেত্রে সকলের সহযোগিতা প্রয়োজন এবং প্রতিটি দল বলেছে তারা ঐক্যমতে বিশ্বা’স করে। ঐক্যমত তো হতেও পারে, নাও হতে পারে। কিন্তু আম’রা বলেছি আম’রা আমাদের প্রয়াস অব্যাহত রাখবো। এই বিষয়ে কেউ না করেনি। প্রয়াসটি অব্যাহত থাকবে।’

নির্বাচন কমিশনার বলেন, ‘আম’রা সুস্পষ্টভাবে বলেছি, ঐক্যটা আমাদের নয়, আম’রা রাজনৈতিক দলগেুলোকে বলেছি আপনারা ঐক্যের চেষ্টা করুন এবং ঐক্য হলে আম’রা আনন্দিত হবো। আর আম’রা যে দায়িত্ব নিয়েছি, আইন-কানুন এবং সংবিধান অনুযায়ী দায়িত্ব পালন করার, সেই দায়িত্বটা পালন করে যাবো।’

এই সংলাপের মধ্য দিয়ে ইসির প্রতি রাজনৈতিক দলগুলোর অনাস্থা দূর হবে কি-না জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘ইসির প্রতি অনাস্থা সবসময় আছে বা নাই দুটো জিনিস। আপনারা তো পেপারেই দেখছেন একটা দলের হয়তো অনাস্থা আছে। আবার আমাদের সঙ্গে বসেছে, তাদের প্রত্যেকের আমাদের প্রতি আস্থা আছে।’

বিএনপিকে সংলাপে আনার জন্য বিশেষ কোনো উদ্যোগ নেবেন কি-না জানতে চাইলে এর কোনো উত্তর দেননি ইসি।

Back to top button